রোহিঙ্গাদের কষ্ট, যন্ত্রনা সহ্য করার মত নয়: প্রধানমন্ত্রী

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১১:৪৭ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০১৮ | আপডেট: ১১:৪৭:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০১৮
রোহিঙ্গাদের কষ্ট, যন্ত্রনা সহ্য করার মত নয়: প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গাদের কষ্ট, যন্ত্রনা সহ্য করার মত নয়। কোনো মানুষই সহ্য করতে পারবেনা বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার ৯ জানুয়ারি ভয়েস অব আমেরিকাকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব বলেন। রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিকভাবে মিয়ারমার সরকারকে যেন আরো বেশি চাপ দেয়া হয়, যাতে তারা তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেয়। সেখানে এমন একটি পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে, যার কারনে তারা এদেশে এসেছে। সেখানে গ্রামের পর গ্রাম জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে। বৃদ্ধ, শিশু, নারী দল বেধে চলে এসেছে। কোনো কোনো শিশু এসেছে একেবারে একা, সাথে মা-বাবা কেউ সাথে নেই। এই শিশুদের পরিবারের অন্য সদস্যদের হত্যা করা হয়েছে। মানবিক কারণে আমরা তাদের আশ্রয় দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানবিক দিক বিবেচনা করে আমরা তাদের আশ্রয় দিয়ে সাদ্যমত সাহায্যের চেষ্টা করেছে। কিন্তু আন্তর্জাতিক সম্প্রয়দায় মিয়ানমার সরকারকে আরো বেশি চাপ দিতে হবে। তাদের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেয়া সহ তাদের জন্য যাতে পুনর্বাসনের ব্যবস্তা করে। আর যে ঘটনা ঘটেছে, এধরনের ঘটনা যাতে আর না ঘটে। মিয়ানমার সরকারকে আমরা বলেছি তাদের দেশে কেউ যদি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালায় বাংলাদেশ তাদের স্থান দেবেনা। এক্ষেত্রে দুদেশের মাঝে সমঝোতা এবং আলোচনার মাঝে তাদের কাছে যদি এধরনের কোনো তথ্য থাকে তারা আমাদের দেবে, আমাদের কাছে থাকলে আমরা তাদের দিব। তাদের দেশের নিরীহ নাগরিকদের উপর আর যাতে এই রকম অত্যাচার না হয়।

১৯৭৫ সালের শোকাবহ কালো দিবস ১৫ আগস্টের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, আমি একজন মা, আমি একজন মানুষ। একজন মানুষ হিসেবে আমি কখনো মেনে নিতে পারিনা, তাদের উপর অত্যাচার করা হবে, তারা নির্যাতিত হচ্ছে, তারা তাদের বাড়িঘর ছেড়ে চলে আসবে। এছাড়া আমি এবং আমার ছোটো বোন এক সময় এতিম হয়ে অন্য দেশে আশ্রয় নিতে হয়েছিল। যখন ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট আমার মা-বাবা, আমার ভাইদের হত্যা করা হয়েছিল। আমার আত্মীয় স্বজনদের হত্যা করা হয়েছিল। আমার বিদেশে ছিলাম, কিন্তু ছয় বছর দেশে ফিরতে পারিনি। আমাদেরকেও রিফিউজি হিসেবে অন্য দেশে থাকতে হয়েছে। শুধু আমরাই নয়, ১৫ আগস্ট যাদের পরিবারকে এভাবে হত্যা করা হয়েছে, তাদের সবাইকে এভাবে আশ্রয় নিতে হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরো বলেন, ৭১ সালের যুদ্ধের সময় বাংলাদেশের কয়েক কোটি মানুষ ভারতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছে। স্বাভাবিকভাবে আমাদের প্রতিবেশী দেশের মানুষ কষ্টে থাকলে আমাদেরও মন কাদেঁ। রোহিঙ্গাদের কষ্ট, যন্ত্রনা সহ্য করার মত নয়। কোনো মানুষই সহ্য করতে পারবেনা।

ভয়েস অব আমেরিকাকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা সংকট ছাড়াও বাংলাদেশের রাজনীতি নিয়েও বিভিন্ন কথা বলেছেন