বাবুগঞ্জে বেকারি উচ্ছেদের চেষ্টায় বারবার মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ

আরিফ হোসেন আরিফ হোসেন

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৮:১৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০ | আপডেট: ৮:২১:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি॥ বরিশালের বাবুগঞ্জের স্টীল ব্রীজ এলাকায় চলমান “মায়ের দোয়া” বেকারি উচ্ছেদের চেষ্টায় বারবার মামলা দিয়ে হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, ভুক্তভোগী হানিফ সিকাদর ক্ষুদ্রকাঠি মৌজায় ২৩২ ও ৬৭৫ খতিয়ানের এসএ ২২৮২ দাগের পৌত্রিক ৫শতক জমির উপর দীর্ঘদিন যাবৎ “মায়ের দোয়া’ নামের একটি বেকারি নির্মান করে রুটি রুজির জন্য চালু করেন। কিন্তু বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি প্রতিপক্ষ মৃত সুলতান সিকদারের পূত্র সুজন সিকদার। সে ওই জমি থেকে বেকারি উচ্ছেদের লক্ষ্যে একেরপর এক এ যাবৎ ৬টি মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানি করছে হানিফ সিকাদারকে। আদালতে দায়েরকৃত ৬টি মামলার ৪টি মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে ইতিমধ্যে ও দুটি চলমান রয়েছে।

সূত্র মতে, বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যজিষ্ট্রেট আদালতে ফৌজধারি কার্যবিধি আইনের ১৪৪/১৪৫ ধারা অনুযায়ি এই বছরের মার্চের ১৮ তারিখ হানিফ সিকদারকে বিবাদি করে মামলা দায়ের করেন মামলাবাজ সুজন সিকদার। মামলা নং- এমপি ২৭/২০২০। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি)এর কাছে তদন্তের জন্য পাঠায়। বাবুগঞ্জের সহকারি কমিশনার (ভূমি ) নুসরাত জাহান খান চলতি মাসের ৬ তারিখ বিবাদমান জমিতে বেকারি রয়েছে উল্লেখ করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। ৮ই সেপ্টেম্বর আদালত এসিল্যান্ডের তদন্ত রিপোর্ট ও উভয় পক্ষের যুক্তি পর্যালচনা করে মামলাটি খারিজ করে দেয়। তদন্ত রিপোর্ট বিপক্ষে যাওয়ায় ও মামলা খারিজের ২ দিনের মাথায় ১০ সেপ্টেম্বর প্রতিপক্ষ আগের মামলার ১ নং সাক্ষী সিদ্দিক সিকাদরকে বাদী করে নুতুন করে একই আদলতে মামলা দায়ের করেন। মামলা খারিজের ২দিনের মাথায় নতুন করে মামলা দায়ের করায় স্থানীয়দের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
ভূক্তভোগী বৃদ্ধ হানিফ সিকদার বলেন, আমার একমাত্র আয়ের সম্ভল বেকারিটি উচ্ছেদের জন্য হুমকি, ধামকি ও একেরপর এক মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। এই বয়সে এসে মামলা নিয়ে দৌড়াতে দৌড়াতে ক্লান্ত হয়ে পড়েছি। কতৃপক্ষরে কাছে সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানায় তিনি।