বাংলাদেশসহ ১২ দেশের নাগরিকদের মালয়েশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৪:০৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০ | আপডেট: ৪:০৭:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২০

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে মালয়েশিয়াজুড়ে রয়েছে চলমান রিকভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও)। যা শেষ হবে আগামী ৩১ ডিসেম্বর।

বর্তমানে বেশ কয়েকটি দেশে কোভিড-১৯ রোগীর ক্রমবর্ধমান সংখ্যার বিষয়টি বিবেচনা করে এরইমধ্যে বাংলাদেশসহ প্রায় ১২টি দেশের নাগরিকদের মালয়েশিয়া প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির সরকার।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) মালয়েশিয়ার রিকভারি মুভমেন্ট কন্ট্রোল অর্ডার (আরএমসিও) বাস্তবায়নের বিষয়ে বিশেষ মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এরপর কোভিড-১৯ এর নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছেন দেশটির জ্যেষ্ঠ মন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব।

মালেশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা বার্নামা জানায়, মালয়েশিয়ায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার তালিকায় যুক্ত হয়েছে—বাংলাদেশ, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ব্রাজিল, স্পেন, ফ্রান্স, ইতালি, সৌদি আরব ও রাশিয়া। এর আগে মঙ্গলবার ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া এবং ভারতের নাগরিকদের ওপর একই ধরনের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

আগামী ৭ সেপ্টেম্বর থেকে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে।

রয়টার্স জানায়, দীর্ঘমেয়াদি অভিবাসন পাস হোল্ডার যেমন: স্থায়ী বাসিন্দা, মালয়েশীয় নাগরিকদের বিদেশি স্বামী বা স্ত্রী এবং সরকারের বিশেষ ‘মালয়েশিয়া মাই সেকেন্ড হোম’ প্রবাসী কর্মসূচির আওতায় যারা আছেন তারা এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বেন।

মালয়েশিয়ার মন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব বলেন, ১ লাখ ৫০ হাজারেরও বেশি করোনা রোগী আছে এমন সব দেশকে নিষেধাজ্ঞায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

তিনি আরও জানান, তালিকাভুক্ত দেশগুলো থেকে মালয়েশিয়ার নাগরিকদের দেশে ফিরবার ক্ষেত্রে কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। তবে দেশে আসার পর বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।