মাদারীপুরে আবাসিক হোটেলে ধর্ষণ, ম্যানেজারসহ আটক-৪

নাজমুল হক নাজমুল হক

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১:১৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২০ | আপডেট: ১:১৯:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২০

স্টাফ রিপোর্টারঃ

ফেসবুকের মাধ্যমে ইতালি প্রবাসী যুবকের সঙ্গে এক শিক্ষার্থীর পরিচয় হয়। একপর্যায় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সূত্রে রবিবার সকালে প্রেমিক বায়েজিদের সঙ্গে দেখা করতে আসে ওই তরুণী।
প্রথম দেখাতেই তরুণীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে
মাদারীপুরের একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ করে
বায়েজিদ। শহরের ভুঁইয়া ইন আবাসিক হোটেলে এঘটনা ঘটেছে ।

এই ঘটনায় হোটেল ম্যানেজারসহ সহযোগী ৪ জনকে আটক করেছে মাদারীপুর থানা পুলিশ। আটকৃতরা হলো ম্যানেজার মিজানুর রহমান, মো. বাইজিদ মাতুব্বর (২৩), মো.পিয়াস জামান(২৩), শান্ত রহমান (২২)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ইতালি প্রবাসী বায়েজিদ প্রবাসে থাকা অবস্থায় ফেইসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে বায়েজিদ ও তার সহযোগীরা মাদারীপুর শহরের ভুঁইয়া ইন আবাসিক হোটেলে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত থাকা অবস্থায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বায়েজিদ একাধিকবার ধর্ষণ করে।এরপর ওই শিক্ষার্থীকে বিয়ে করতে না চাওয়ায় একাধিক ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যা চেষ্টা করে। অভিযুক্ত বায়েজিদ মাতুব্বর শিবচর উপজেলা নিলখী গ্রামের আক্কাস মাতুব্বরের ছেলে।

ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীর চাচাতো ভাই জানায়, ফেইসবুকে পরিচয়ে তার সাথে দেখা করতে এসে এই অবস্থা হয়েছে।

মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম মিয়া ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে হোটেল ম্যানেজারসহ ৪ জনকে আটক করেছি এবং একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

জিএম/নাজমুল