বাবুগঞ্জে জোয়ারের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত,অসহায় হয়ে পরছে মানুষ

আরিফ হোসেন আরিফ হোসেন

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১২:১১ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৬, ২০২০ | আপডেট: ১২:১১:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ৬, ২০২০

বাবুগঞ্জে জোয়ারের পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত,অসহায় হয়ে পরছে মানুষ

অারিফ হোসেন, বাবুগঞ্জ: গত একদিনে জোয়ারের পানিতে বরিশালের বাবুগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে ঘর বন্দী হয়ে পরে মানুষ। কোথাও কোথাও থেকে খবর পাওয়া যাচ্ছে, জোয়ারের পানি ঘরে মধ্যে প্রবাহিত হচ্ছে। উত্তর অঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতির উন্নতির সাথে সাথে ও পূর্ব দিকের প্রবল বাতাসে অাড়িয়াল খাঁ, সন্ধ্যা, সুগন্ধা নদীর পানি ফেঁপে ফুঁসে উঠছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। উপজেলার চাঁদপাশা ইউনিয়নের কোলচর, নোমর হাট, বায়লাখালি, জুনিয়র এলাকায় জোয়ারের পানি বিপদ সীমার উপর দিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে ইউপি চেয়ারম্যান অানিচুর রহমান সবুজ।তিনি বলেন জোয়ারের কারনে একটি ভেরিবাদ ভেঙ্গে সন্ধ্যা থেকেই এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। বাইলাখালি থেকে নোমর হাটে যাওয়ার কার্পেটিং রাস্তা তলিয়ে গেছে। এ অঞ্চলের মানুষ অসহায় হয়ে পরছে। রহমতপুর ইউনিয়নের মীরগঞ্জ ফেরি ঘাট, ছোট মীরগঞ্জ, নোহালিয়া গ্রাম, রাজগুরু, বাবুগঞ্জ খেয়াঘাট দোয়ারিকাসহ বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়ে বাড়ির মধ্য থেকে জোয়ারের পানি প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানাগেছে । জেলা পরিষদ সদস্য মাইনুল হোসেন পারভেজ মৃধা’র তিন একর জমির উপর দুইটি মাছের ঘের থেকে প্রায় ৩লক্ষ টাকার বিভিন্ন জাতের মাছ বেড়িয়ে গেছে। অাওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মৃধা মুহাঃ অাক্তার উজ জামান মিলন জানায়, নদী পারের মানুষ অসহায় হয়ে পরছে। সন্ধ্যার পর থেকে সকলের খোঁজ খবর নিচ্ছি। এভাবে অার একদিন পানি উঠতে থাকলে নিন্ম অঞ্চলের মানুষদের নিরাপদে সরিয়ে নিতে হতে পারে। এ ছাড়া নদী বেষ্টিত কেদারপুর ইউনিয়নের মানুষ বেশি দুশ্চিন্তায় পরেছে। এ ইউনিয়নের বেশিরভাগ গ্রামের রাস্তা পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ইউনিয়ন অাওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মাহবুব উল অালম মাসুম মৃধা বলেন নদী পরের পরিবারগুলো সংকটে পরেছে।তাদের সহযোগীতা করা সমাজের সকলে দায়িত্ব হয়ে পরেছে। দেহেরগতি ইউনিয়নের নিন্ম অঞ্চল সন্ধ্যা ও সুগন্ধা নদীর জোয়ারে পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ইউনিয়ন অাওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মাঝি মোঃ মাসুম রেজা বলেন, রাকুদিয়া গ্রামের নদী পারের মানুষ দুশ্চিন্তায় পরছে। গরু, ছাগলসহ পোষা প্রানি নিয়ে বিপাকে পরেছে খেটে খাওয়া মানুষ। এছারা বাহেরচর, শিকারপুরে কিছু অংশে জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হচ্ছে।
বীর শ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়েনের অবস্থা জোয়ারের পানিতে খারাপের দিকে যাছে। পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে নদী ভাঙন তীব্র অাকার ধারন করছে বলে বিভিন্ন এলাকা থেকে খবর অাসছে। মাধবপাশা ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের রাস্তা ঘাট তলিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
ভুক্তভোগীরা জনপ্রতিনিধিদের পাশে থাকার অাহ্বান জানিয়েছে।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস জোয়ারের পানিতে তলিয়ে যাওয়া নিন্ম অঞ্চলের মনিটরিং করছে বলে জানা গেছে।
বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ অামীনুল ইসলাম’র সরজমিনে পরিদর্শনে যাওয়ার কথা রয়েছে।