বাবুগঞ্জে অর্ধকোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা ভূয়া এনজিও পিডিএফ

আরিফ হোসেন আরিফ হোসেন

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২:০৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০২০ | আপডেট: ২:০৫:অপরাহ্ণ, জুলাই ২২, ২০২০

বাবুগঞ্জ(বরিশাল)প্রতিনিধি॥ বরিশালের বাবুগঞ্জে লোন দেওয়ার কথা বলে মাত্র ১৫ দিনের মাথায় সাধারণ জনগনের কাছ থেকে আনুমানিক অর্ধকোটি টাকা নিয়ে লাপাত্তা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভুক্তভোগীরা। জানাযায়, জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে উপজেলার খানপুরা জলিল মোল্লার বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে পিপলস্ ডেভলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এম আর এ রেজিঃ নং- ০৩৬৬৫ ০২৮৩৭ ০০৩৪২ ) নামের একটি সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে সদস্য সংগ্রহ ও লোন কার্যক্রম শুরু করে চক্রটি। তথ্য মতে লোন দেওয়ার কথা বলে দুইশতাধিক মানুষের কাছ থেকে সঞ্চয় বাবদ ২০-৩০ হাজার টাকা করে উত্তলন করেন মাঠ কর্মী মিজানুর রহমান নামের এক ব্যক্তি। ব্রাঞ্চ ম্যানেজার আবুল কালাম পরিচয়ে ০১৩০৮৬৪২২৩৫ নম্বর থেকে লোন প্রত্যাশিদের সাথে কথা বলেছে। ২২ জুলাই বুধবার সকালে লোন প্রত্যাশিরা অফিসে এসে জানতে পারে ২১ জুলাই থেকে অফিসে কেউ আসে না, সঞ্চয়ের টাকা নিয়ে ফোন বন্ধ করে লাপাত্তা হয়ে গেছে । প্রতারনার শিকার চাঁদপাশা এলাকার সুমন বলেন, আমার দোকানে ব্যবসায়ের জন্য ২ লক্ষ টাকা লোন দেওয়ার কথা বলে ২০ হাজার টাকা নিয়ে গেছে। এরকম মাধবপাশার ইকবাল ,রহমতপুরের সাকিল প্রতারনা শিকার হয়েছে বলে জানিয়েছে।

অফিসরুম ভারা দেওয়া মালিকের ভাই স্থানীয় ইউপি মেম্বার সুলতান মোল্লা জানায় আগামী শুক্রবার ভারার বিষয়ে ডিট কথা ছিলো কিন্তু তারা ২১ জুলাই থেকে কেউ অফিসে আসছে না। সবার ফোন নম্বর বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে ।