বরিশালে খেজুর গাছ বিলুপ্তির পথে হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার এ ঐতিহ্য।

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৩৪ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৩৪:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৮, ২০১৮
বরিশালে খেজুর গাছ বিলুপ্তির পথে হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার এ ঐতিহ্য।

সৈয়েব হোসেন সম্রাট :: বরিশালের গ্রামাঞ্চলে এক সময় সারি সারি খেজুর গাছ ছিল।এখন সে রকম খেজুর গাছ নজরে পড়ে না। কালের বিবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে খেজুর গাছ এবং সে গাছের রসের তৈরি শীতের পিঠা, এক সময় খেজুর রসের মনমাতানো গন্ধে মৌ, মৌ করতো বরিশালের অলি গলি, এবং রস থেকে গুড় তৈরি করে তা বাজারে বিক্রি করতেন গাছিরা ,কিন্তু এখন তাও বাজারে পাওয়া যায় না।
গাছিরা বলেন, জ্বালানি কাঠ ও কয়লা আপেক্ষা খেজুর গাছ সস্তা দামে পাওয়া যায় বলে ইট ভাটায় এর চাহিদা বেশি সেজন্যই প্রায় খেজুরের গাছই কেঁটে ফেলা হয়েছে। কেননা, খেজুরের গাছে পোড়ানো ইটের রং গাঢ় হয়। সময়ের পরিবর্তনে ও সচেতনাতার অভাবে আজ হারিয়ে যেতে বসেছে ঐতিহ্যবাহী খেজুরের রস। উপজেলার গ্রামগুলো মাঠে আর মেঠোপথের ধারে কোথাও কোথাও দু’একটি খেজুর গাছ দাঁড়িয়ে আছে কালের সাক্ষী হিসাবে, গ্রামগুলোতে জীব বৈচিত্রের সংরক্ষণ ও প্রাকৃতিক পরিবেশের উন্নয়নে বন বিভাগের সচেতনতার অভাবে এসব অঞ্চলে খেজুর গাছ অনেকটা বিলুপ্তির পথে। এক সময় খেজুর গাছের রস ও তার গুড়ের খ্যাতি থাকলেও কালের বিবর্তনে সম্পুর্ন হারিয়ে যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার এ ঐতিহ্য।