মুগদা হাসপাতালে সাংবাদিক লাঞ্ছিত, দুই ‘উশৃঙ্খল’ আনসার ক্লোজড

নাজমুল হক নাজমুল হক

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ১:০৭ অপরাহ্ণ, জুলাই ৪, ২০২০ | আপডেট: ১:০৭:অপরাহ্ণ, জুলাই ৪, ২০২০

অনলাইন ডেস্কঃ

রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালে পাঁচ ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করার পরও ক্যান্সার আক্রান্ত মায়ের করোনা পরীক্ষা করাতে পারেননি মুগদা মডেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শাওন হোসেন।
প্রতিবাদ করলে আনসার সদস্যরা তাকে মারধর করেন।

এ সময় ছবি তুলতে গিয়ে লাঞ্ছিত হয়েছেন বাংলাদেশ প্রতিদিনের ফটো সাংবাদিক জয়ীতা রায় ও দেশ রূপান্তরের ফটো সাংবাদিক রুবেল রশীদ।

আনসারের উপ-পরিচালক মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন সাংবাদিকদের জানান, শুক্রবার সকালের ওই ঘটনায় দুই আনসার সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শাওন অভিযোগ করেন, নিয়ম অনুযায়ী ৪০ জনের পরীক্ষা করার কথা। তার মায়ের সিরিয়াল ছিল ৩৬। ৩৩ নম্বরের পর আনসার সদস্যরা হঠাৎ করে আর হবে না জানান।

তখন প্রতিবাদ করলে তাকে কলারে ধরে টেনে আনসার ক্যাম্পে নিয়ে মারধর করা হয়। সেখানে একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে পুরো বিষয়টি বলার পরও তিনি উল্টো দোষারোপ করেন।

মুগদা থানার ওসি প্রলয় কুমার সাহা বলেন, একজন ফটো সাংবাদিক জিডি করেছেন। ভিডিও ফুটেজ দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জিএম/হক