বিসিএস লাইভস্টোক ক্যাডারে ৯ম, ঝালকাঠির বিথী দেবনাথ

প্রকাশিত: ২:৩৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০২০ | আপডেট: ২:৪২:অপরাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০২০

৩৮ তম বিসিএস এ লাইভস্টোক ক্যাডারে ৬৪ জনের মধ্যে নবম স্থান অধিকার করে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েছেন ঝালকাঠির বিথী দেবনাথ। প্রথমবারে বিসিএস পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে তার প্রথম পছন্দ ছিলো লাইভস্টোক ক্যাডার। তিনি প্রথমবারে বিসিএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে উত্তীর্ণ হয়েছেন। বিথী দেবনাথ শহরের বাঁশপট্টি এলাকার দিলীপ দেবনাথের জ্যেষ্ঠ কন্যা। তার মা কল্যাণী দেবনাথ গৃহিনী। ছোট ভাই সৌরভ দেবনাথ এ বছরের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।
বিথী দেবনাথ জানান, ঝালকাঠি উদ্বোধন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়ে সরকারী হরচন্দ্র বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেন। মেধাক্রমে ৪৫তম স্থানে সে ভর্তি সুযোগ পান। শ্রেণিকক্ষে পড়াশুনায় ভালো থাকলেও ৫ম শ্রেণিতে বৃত্তি না পাওয়ার ক্ষোভে শিক্ষা জীবনের প্রতিযোগিতায় আরো আগ্রহ বাড়ে তার। ২০০৬ সালে ৮ম শ্রেণিতে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি অর্জন করেন। সরকারী বালিকা বিদ্যালয় থেকেই বিজ্ঞান বিভাগে ২০০৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়ে কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়ে ঝালকাঠি সরকারী মহিলা কলেজে বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসিতে ভর্তি হন। ২০১১ সালে এইচএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়ে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) ডক্টর অব ভেটেরেনারি মেডিসিন বিভাগে অনার্স ভর্তি হন।
অনার্স চুড়ান্ত পরীক্ষা দেয়ার আগেই ৩৮তম বিসিএস পরীক্ষার সার্কুলার পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের এপেয়ার্ড সার্টিফিকেট নিয়ে আবেদন করেন। একদিকে চুড়ান্ত পরীক্ষার উদ্যেশ্যে মাঠ প্রশিক্ষণে অংশ গ্রহণ করে দেশের বিভিন্ন জেলায় অবস্থান করা অপরদিকে বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে চরম পরিশ্রম করতে হয়েছে। বুধবার ছিলো অনার্স ফাইনালের শেষ পরীক্ষা আর শুক্রবার ছিলো ৩৮তম বিসিএসের প্রিলিমিনারী পরীক্ষা। দুটি পরীক্ষায়ই কৃতিত্বে সাথে উত্তীর্ণ হবার পরপরই প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগে সহকারী শিক্ষক পদে আবেদন করে নিয়োগ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। প্রথম পদায়নই ছিলো তার শিশু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে। ৩৮তম বিসিএস পরীক্ষার সকল ধাপে উত্তীর্ণ হয়ে সদ্য ঘোষিত সুপারিশ প্রাপ্তদের মধ্যে বিথী দেবনাথ লাইভস্টোক ক্যাডারে ৬৪ জেলার ৬৪ জনের মধ্যে ৯ম স্থান অধিকার করেছেন।
বিথী দেবনাথ আরো জানান, ভেরিফিকেশন শেষে কর্মস্থলে যোগদান করে সততার সাথে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করে প্রাণি সম্পদের সম্প্রসারণ করে উন্নত দেশ গড়তে দেশকে এগিয়ে নেয়ার গর্বিত অংশীদার হিসেবে কাজ করাই জীবনের একমাত্র মূল লক্ষ্য ও উদ্যেশ্য। অবসর সময়ে তার প্রথম পছন্দ নজরুল গীতি ও দ্বিতীয় পছন্দে মান্না দে’র গান শোনা।
বিথীর পিতা দিলীপ দেবনাথ ও মাতা কল্যাণী দেবনাথ জানান, বিথীর ছোটবেলা থেকেই পড়াশুনার প্রতি প্রবল আগ্রহ। সেই আগ্রহ থেকেই তার জীবনের চুড়ান্ত লক্ষ্যে পৌছতে সক্ষম হয়েছে। আমরা তার সাফল্যে আনন্দিত ও গর্বিত।
ঝালকাঠি সরকারী মহিলা কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ আনোয়ার হোসেন পান্না জানান, আজ আমার ঝালকাঠি সরকারী মহিলা কলেজের ছাত্রী বিথী দেবনাথ লাইভস্টোক ক্যাডারে (ভেটেরেনারী সার্জন) ৩৮তম বিসিএসে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়েছে। তাকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।