চীনা হা’মলা রুখতে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন ভা’রতের

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৩:৫৩ অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০ | আপডেট: ৩:৫৩:অপরাহ্ণ, জুন ২৩, ২০২০

চীনে বাংলাদেশি পণ্যের শুল্কমুক্ত প্রবেশ নিয়ে খবরে ‘খয়রাতি’ শব্দ ব্যবহারে ক্ষমা চাইলো কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার। আজ পত্রিকাটি ভুল স্বীকার করে এ বিবৃতি দেয়। এদিকে, চলমান উত্তে’জনা কমাতে সীমান্তে ১১ ঘণ্টা চীনের সঙ্গে বৈঠক করেছে ভা’রত। কূটনৈতিক নানা তৎপরতার মধ্যেই সম্ভাব্য হা’মলা রুখতে লাদাখে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে দেশটি।

চীনা পণ্যবিরোধী বি’ক্ষোভে এখন সরব ভা’রতের রাজপথ। লাদাখে চীন-ভা’রত সংঘাতের পর থেকে প্রায় প্রতিদিনই এমন বি’ক্ষোভ হচ্ছে। এদিকে চীনা গণমাধ্যমগুলো বলছে, ভা’রতীয় শিল্পকারখানাগুলো চীনা কাঁচামালনির্ভর হওয়ায় তাদের সহায়তা ছাড়া অচল ভা’রত।

এদিকে সীমান্তে ১১ ঘণ্টা বৈঠক করেছে প্রতিবেশী দুই দেশ। সেখানে সে’না সরানোর বিষয়ে আলোচনা হয়। এছাড়াও গালওয়ান উপত্যকার দিকে মুখ করে যেসব নির্মাণকাজ চালাচ্ছে চীন তা বন্ধেরও দাবি জানায় ভা’রত। বেইজিং- এর সঙ্গে এ সপ্তাহেই আরও একটি কূটনৈতিক বৈঠকে বসতে যাচ্ছে নয়াদিল্লি।

উত্তে’জনা নিরসনে কূটনৈতিক তৎপরতা অব্যাহত থাকলেও আকাশপথে চীনা হা’মলা রুখতে লাদাখে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে ভা’রত। তবে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সরকারিভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেনি।

এদিকে, লাদাখের পরে ঢাকাকে পাশে টানছে বেইজিং শীর্ষক খবরে খয়রাতি শব্দটি ব্যবহারে তোপের মুখে ক্ষমা চেয়েছে কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার। খবরে দাবি করা হয়, খয়রাতি টাকা ছড়িয়ে বাংলাদেশে পাশে পাওয়ার চেষ্টা নতুন নয় চীনের।