বীরগঞ্জে কুকুরের হামলায় ৮ বছরের শিশু সিয়াম দিমেক হাসপাতালে মৃতুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে

এন.আই.মিলন এন.আই.মিলন

দিনাজপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৯:২২ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০ | আপডেট: ৯:৩৫:অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২০

এন.আই.মিলন দিনাজপুর থেকে – দিনাজপুরের বীরগঞ্জে পৌরসভার ৯ নং ওয়াড সংলগ্ন পূর্ব জগদল গ্রামের আদিবাসী (সাঁওতাল) সম্প্রদায়ের বিষু, সুনিরাম, সুতিরাম, নারায়ণ, সোম, রবি’র ৭/৮ টি পোশা কুকুর প্রতিনিয়োত এলাকায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

তাদের পোশা কুকুরের আতংকে রাস্তা দিয়ে যাওয়া মটর সাইকেল, বাই সাইকেল আরোহী ব্যক্তিদের প্রতিনিয়ত আক্রমণের শিকার হতে হয়। একাধিক মটর সাইকেল আরোহী নিজেকে বাঁচাতে গতি বাড়িয়ে দূর্ঘটনার কবলে পড়েছে।

প্রতিবেশী সৈয়দ আলীর শিশু সন্তান সিয়াম (৮) বাড়ীর বাইরে খেলার সময় ১৫ জুন সকাল ৮ টায় তাদের কুকুরের কামড়ে শিশুটি ক্ষত বিক্ষত করলে এলাকাবাসী তার শিশুটিকে উদ্ধার করে তার পিতার হাতে তুলে দেয়।

তারা শিশুটিকে তাৎক্ষনিক বীরগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে গেলা কর্তব্যরত ডাক্তার দ্রুত দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে। বর্তমানে শিশুটি দিমেক হাসপাতালে মৃতুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

শিশুটির বাবা জানায়, সিয়ামের মাথায় ও গলায় আঘাত খুবই গুরুতর। ডাক্তার বলেছে শিশুটির বিভিন্ন যায়গায় কামড় দিয়ে মাংশ তুলে নিয়েছে। সৃষ্টিকর্তাকে ডাকুন বাকিটুকু উনার ভরসা।

বর্তমানে তিনি আইনী পদক্ষেপের মাধ্যমে ন্যয় বিচার কামনা করেন।

অপর দিকে বীরগঞ্জ পৌর শহর সহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বেওয়ারীশ কুকুরের উপদ্রব বেড়েছে, যা প্রশাষনের দৃষ্টি দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।