নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে গৃহকর্মী মারুফা হত্যার সুষ্ঠু তদন্তের দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১:১৪ অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২০ | আপডেট: ১:১৪:অপরাহ্ণ, মে ১৮, ২০২০

ইকবাল হাসান, নেত্রকোনা জেলা প্রতিনিধিঃ

 

নেত্রকোণার মোহনগঞ্জ পৌর এলাকায় গৃহকর্মী মারুফা হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবীতে সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (১৭মে) বেলা ১১টায় পৌর এলাকার কলেজ রোডে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি উপজেলা শাখার উদ্যোগে এই সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আকিকুন্নেছা বিউটি, সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক খোকন, লেখক রইছ মনোরম, নারী নেত্রী তাহমিনা বারীসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ ও স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, বারহাট্টা উপজেলার সিংধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মাহবুব মোর্শেদ কাঞ্চনের মোহনগঞ্জ হাসপাতাল রোডের বাসায় গৃহকর্মী মারুফা হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবী জানান বক্তারা।

এছাড়াও একই সময়ে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে নেত্রকোণা পৌরসভার মোড়ে বারহাট্টা ইউপি চেয়ারম্যানের বাসায় গৃহকর্মীকে ধর্ষণের পর হত্যা ও ছাত্র তৌহিদ হত্যাসহ সকল খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ সাত দফা দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এলাকায় বিভিন্ন মহলে জনশ্রুত রয়েছে সরকারি সাবেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার মামা পরিচয়ে এ চেয়ারম্যান দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম করে যাচ্ছেন । আর এসব অপকের্মর কারণে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী স্বাক্ষরিত ১৯ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে লিখিত চিঠির মাধ্যমে সাময়িক বরখাস্ত করেন এই চেয়ারম্যানকে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (৯মে) বিকালে বারহাট্টা সিংধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মাহবুব মোর্শেদ কাঞ্চনের মোহনগঞ্জের হাসপাতাল রোডের বাসায় কিশোরী মারুফা আক্তারের রহস্যজনক মৃত্যু হয়। পরে মারুফার মৃতদেহ চেয়ারম্যান নিজেই মোহনগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। পুলিশ খবর পেয়ে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

বিভিন্ন প্রতিকূলতা পেরিয়ে সোমবার (১১মে) মারুফার মা আকলিমা আক্তার থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে চেয়ারম্যানকে ওইদিন সন্ধ্যায় আটক করে আদালতে পাঠান ।

পরে অভিযুক্ত চেয়ারম্যানকে প্রথমে নিম্ন আদালতে হাজির করা হলে জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান আদালত । বৃহস্পতিবার (১৪মে) জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আপিল করলে চার্জশিট আদালতে প্রেরণের আগ পর্যন্ত জামিন দেওয়া হয়।