করোনা মোকাবেলায় সরকার সব দিকে প্রস্তুত: প্রেসিডিয়াম সদস্য শাজাহান খান

নাজমুল হক নাজমুল হক

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৮:০৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২০ | আপডেট: ৮:১৯:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২০

করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করলেও সরকার সব দিকে প্রস্তুত আছে বলে দাবী করেছেন সাবেক নৌ-পরিবহন মন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য শাজাহান খান।

তিনি বুধবার দুপুরে মাদারীপুরে দুর্যোগ মোকাবেলায় করণীয় এক সভা শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন।
শাজাহান খান বলেন, ‘যারা করোনার কারণে ক্ষতিগ্রস্থ্য হবে তাদের প্রতিটি ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেয়া হবে। বিশেষ করে যারা অসহায় দারিদ্র তাদের বেশি অগ্রাধিকার দেয়া হবে। আর যারা ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম করে আত্মসাৎ করবে তাদের কঠোর হাতে দমন করা হবে। এক্ষেত্রে কাউকেই ছাড়া দেয়া হবে না। প্রধানমন্ত্রীও এব্যাপারে আমাদের কঠিণ নির্দেশনা দিয়েছেন।’
তিনি আরো বলেন, ‘করোনার প্রভাব বর্তমানে স্থিতিশীল রয়েছে, এর মানে এই নয় যে, আমরা শংকা মুক্ত। আমাদের প্রতিটি মানুষকে সচেতন হয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। যদি কেউ আইন অমান্য করে তাদেরও ব্যাপারেও আমরা কঠোর হবো।’
মাদারীপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে দুর্যোগ মোকাবেলায় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের করণীয় সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম। এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিয়াজউদ্দিন খান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, সির্ভিল সার্জন ডা. শফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. ওবায়দুর রহমান খান প্রমুখ। সভায় সরকারী-বেসরকারী উর্ধ্বতন কর্মকর্তা-কর্মচারী, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক-সামাজিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় মাদারীপুর জেলায় করোনায় অধিক ঝুঁকি থাকার পরেও সেনাবাহিনীর উল্লেখ্যযোগ কার্যক্রম না থাকায় অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সভায় সেনাবাহিনীকে আরো তৎপর হয়ে বিভিন্ন স্থানে সচেতনমূলক কার্যক্রম পরিচালনার আহবান জানানো হয়।
পরে শাজাহান খান মাদারীপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে জীবানুনাশক স্পে করেন। এছাড়াও তিনি ত্রাণ সহায়তা কার্যক্রমে অংশ নেয়।

জিএম/নাজমুল