দশমিনায় প্রতি কেজি ১০টাকা দরে চাল পাচ্ছেন ১১ হাজার ৬৫৮দুঃস্থ পরিবার

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৬:১১ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৯, ২০২০ | আপডেট: ৬:১১:অপরাহ্ণ, মার্চ ১৯, ২০২০

ফয়েজ আহমেদ দশমিনা প্রতিনিধি ॥
পটুয়াখালীর দশমিনায় সরকারের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০টাকা কেজি দরে ৩০কেজি করে চাল পাচ্ছেন ১১হাজার ৬শ” ৫৮জন দরিদ্র পরিবার। প্রতিবছর মোট পাঁচমাস ১০টাকা কেজি দরে চাল বিতরণ করছে সরকার। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে উপজেলার ৭ইউনিয়ানে এ চাল বিতরন কার্যক্রম শূরু হয়েছে।

 

খাদ্যবান্ধব সরকার এ চাল বিতরণ করছে। বৃহস্পতিবার, রোববার ও মঙ্গলবার তিন দিন এ চাল বিতরন করেন। কার্ডধারী প্রত্যেক পরিবার পাবেন ৩০কেজি চাল। গ্রামে বসবাসরত হতদরিদ্র ভূমিহীন, কৃষিশ্রমিক, দিনমজুর, উপার্জনে অক্ষম, বিধবা, তালাক প্রাপ্তা, স্বামী পরিত্যাক্তা, অস্বচ্ছল বয়স্ক নারী প্রধান প্ররিবার এবং যে সব দৃঃস্থ পরিবারে শিশু বা প্রতিবন্ধী রয়েছে তারা এ তালিকায় অগ্রাধিকার পাবেন। এমন নির্দেশনার আলোকে তালিকা তৈরি করে কার্ডধারী পরিবার ১০টাকা কেজি দরে মাসে একবার ৩০ কেজি করে চাল ক্রয়ের সুযোগ পাবেন। উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে এমন কার্ডধারী হতদরিদ্র ১১ হাজার ৬শ” ৫৮ পরিবার মঙ্গলবার থেকে এ চাল টানা তিন মাস পাচ্ছেন।
দশমিনা উপজেলা আ”লীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. ইকবাল মাহামুদ লিটন বলেন, তাঁর ইউনিয়ানে ডিলারের মাধ্যমে হতদরিদ্র পরিবার গুলোকে চাল বিতরণ করা হয়। চাল বিতরণে কেউ যাতে কোন অনিয়ম না করে এব্যাপারে কঠোর হুশিয়ারী দিয়েছেন।

উপজেলা খাদ্য অধিদপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার মো: লতিফুর রহমান বলেন, সরকার চল বিতরণে অনিয়ম রোধ করতে ত্রিশ কেজি চালের বস্তা দেওয়া হচ্ছে। এতে করে চালে ওজনে কম দেওয়ার কোন সুযোগ নেই। উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানিয়া ফেরদৌস জানান, ১০টাকা কেজি’র চাল বিতরণে কোন ইউনিয়ানে অনিয়মের খবর পেলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।