মেয়েটি অনেক দূর যাইতে পারবে : চয়নিকা চৌধুরী

এ আল মামুন এ আল মামুন

স্টাফ রিপোর্টার

প্রকাশিত: ১২:২২ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০ | আপডেট: ১২:২২:পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০

বিনোদন ডেস্ক: চলচ্চিত্রে নবাগত হলেও অভিনয়ে নবাগত নন মডেল ও অভিনেত্রী রাইসা। অভিনয়ে তার পাটাতন সুশক্ত হয়েছে তীর্যক থিয়েটার থেকে। মাদারিপুরের মেয়ে রাইসা আঞ্চলিক ভাষা থেকে বেরিয়ে শব্দের সঠিক উচ্চারণ এবং প্রক্ষেপণ শিখেছেন তীর্যক থেকেই। চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত ভোরের আগে টেলিফিল্মের সেটে বসেই তার সঙ্গে কথা হচ্ছিল।

তিনি জানান, রাসেল জে আর পি পরিচালিত ‘ষ্টেশন’ নামে একটি নতুন ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। ছবিটির কাজ শুরু হবে আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে। ইতোমধ্যে রাইসা নয়টি নাটকে অভিনয় করেছেন। এই নাটকগুলোর মধ্যে রয়েছে মাটির ঘ্রাণ, উড়াল পংখী, উপেক্ষায় অবগাহন, জীবনের গল্প, মাথায় গন্ডোগোল আছে, ডুব সাঁতার, ভেল্কিবাজি, নীড় খোজে গাংচিল এবং তাহেরি বউ। আরও দু’একটি নতুন নাটকের কাজ শুরু হবে এ মাসেই। এছাড়া তিনি পাঁচটি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছেন। অনলাইন বিজ্ঞাপনচিত্র, মিডিয়া জগতের ভাষায় যাকে বলা হয় ওভিসি – তেমন বিজ্ঞাপনচিত্রেও কাজ করেছেন তিনি। রাইসা সম্পর্কে চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘মেয়েটি অনেক দূর যেতে পারবে। সে বিনা প্রশ্নে পরিচালককে অনুসরণ করে চলে। পরিচালক যেভাবে কমান্ড করে সে সেভাবেই কাজটা করার চেষ্টা করে।

‘ভোরের আগে’ টেলিফিল্মের বিশিষ্ট চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেন বুলু বলেন, ‘লেগে থাকলে মেয়েটি অনেক ভালো করবে। বিরতি দিয়ে কাজ করলে হবে না।’ রাইসা জানান, তিনি কাজটাকে কাজ হিসেবেই দেখেন এবং তার সাধ্য অনুযায়ী ভালোটা করারই চেষ্টা করেন। তবে পারফর্মিং আর্টের জগত এখন নবাগত দিয়ে ঠাসা। বিশেষ ইউটিউবের প্রসারের কারণে আনাছে-কানাছেই নতুনদের পদচারণা। কিন্তু এখানে টিকে থাকার কথা ভাবেন কয়জন। উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্রী রাইসার কোনো পিছুটান নেই।