আখেরী মোনাজাতে নেছারাবাদে লক্ষাধিক মানুষের অংশগ্রহণ

প্রকাশিত: ৯:১৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০ | আপডেট: ৯:১৬:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০

ঝালকাঠির নেছারাবাদ দরবার শরীফে তিন দিনব্যাপী বার্ষিক ঈছালে ছওয়াব ও ওয়াজ মাহফিল সম্পন্ন হয়েছে। সমাপনী দিনে সোমবার সকালে আখেরী মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেশ ও বিদেশ থেকে আসা লক্ষাধিক ধর্মপ্রাণ মানুষ অংশ নেয়। আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেন উপমহাদেশের বুযুর্গ-ওলী, দার্শনিক ও মুজাদ্দেদ বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ হযরত মাওলানা আযীযুর রহমান কায়েদ সাহেব হুজুরের একমাত্র সাহেবজাদা আমীরুল মুসলিহীন মাওলানা খলীলুর রহমান নেছারাবাদী হুজুর। আখেরী মোনাজাতে মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করা হয়। জাহান্নামের শাস্তি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য দোয়া করা হয় মোনাজাতে। মোনাজাত শুনে মুসলি­রা চোখের পানি ধরে রাখতে পারেনি। আল­াহ আল­াহ ধ্বনিতে মুখরিত ছিল পুরো মাহফিল ময়দান। আখেরী মোনাজাতের আগে বাদ ফজর সমাপনী বয়ানে নেছারাবাদী হুজুর বলেন, কেয়ামতের শাস্তি ভয়ংকর। এ শাস্তি থেকে রক্ষা পেতে হলে পরিপূর্ণ ইমানদার হতে হবে, নামাজ শুদ্ধভাবে আদায় করতে হবে।
উল্লেখ্য, সোমবার বাদ ফজর লক্ষাধিক ধর্মপ্রাণ মুসলি­র উপস্থিতিতে হযরত নেছারাবাদী হুজুর দুই দিনব্যাপী মাহফিলের তানফীযী বয়ান ও আখেরী মোনাজাত পরিচালনা করেন। মোনাজাতে হুজুর নির্যাতিত মুসলিম উম্মাহ ও বিশ^বাসীর মুক্তির জন্য বিশেষ দোয়া করেন।
আখেরী মোনাজাতে ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর আহসান উল­াহ সাইয়্যেদ, বাংলাদেশ জমিয়াতুল মুদারেসিনের মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা সাব্বির আহম্মেদ মোমতাজি, পিএইচপি কুরআনের আলো ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হাফেজ ক্বারী মো. আবু ইউসুফ, হযরত শামসুল হক ফরিদপুরী রহ.-এর সাহেবজাদা হাফেজ মাওলানা রুহুল আমিন সাহেব এবং হযরত নেছারাবাদী হুজুরের সাহেবজাদা ও বাংলাদেশ ফোরকানিয়া বোর্ডের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আযীযুর রহমান তাকী (ছদর ছাহেব হুজুর) উপস্থিত ছিলেন।