খালেদার সম্মানে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের গেট খুলে দিলেন কর্তৃপক্ষ

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৪১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৪১:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২, ২০১৮

কিরণ সেখ: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সম্মানে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের মুল ফটক খুলে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ছাত্রদলের সভাপতি রাজিব আহসান এ কথা জানান। মঙ্গলবার বিকেল ৫ টা ১৭ মিনিটে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের কর্তৃপক্ষ এ কথা জানান। পরে ৫ টা ২০ মিনিটে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা হলে প্রবেশ করেন।
মঙ্গলবার বিকেল ৪ টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের মিলনায়তনের মুল ফটকের এ সমাবেশ শুরু হয়। ফটকের সামনে গাছের নিচে দাঁড়িয়ে নেতাকর্মীরা বক্তব্যে দেন। এর আগে বিকেল পৌনে ৪ টায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সমাবেশেন উদ্দেশ্য তার গুলশান বাসভবন থেকে রওনা হয়েছেন। বিকেল ৪ টা ২৫ মিনিটে বেগম জিয়া সমাবেশস্থলে উপস্থিত হোন।
জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৩৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রসমাবেশ শুরু হয়েছে। সমাবেশে যোগ দিতে আসা ট্রাকে সাউন্ড বক্স ব্যবহার করে এ সমাবেশে নেতারা বক্তব্যে রাখছেন।
পরে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের মুল ফটকের সাসনে গাড়িতে বসে অবস্থান নেন খালেদা জিয়া। এসময় কের্দ্রীয় নেতারা বিভিন্ন সরকার বিরোধী স্লোগান ও বক্তব্যে দেন।
এদিকে ছাত্রসমাবেশের অনুমতি না পাওয়ার পর মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে প্রায় রমনাস্থ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বরে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। সংগঠনটির অসংখ্য নেতাকর্মী এই বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।
পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে মঙ্গলবার দুপুর ২টায় জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৩৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্র সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিল।
সংগঠনটির দফতর সম্পাদক আবদুস সাত্তার পাটওয়ারী জানান, সকাল ১০টায় সমাবেশ মঞ্চ প্রস্তুত করতে নেতাকর্মীরা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে আসলে অডিটরিয়ামে প্রবেশ করতে বাধা দেয়া হয়। কর্তৃপক্ষ থেকে বলা হয়, পুলিশের অনুমতি না থাকায় অডিটরিয়ামে ছাত্র সমাবেশ করতে দেয়া হবে না।
তিনি জানান, যথাযথ নিয়ম মেনে তারা ছাত্র সমাবেশের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করলেও হঠাৎ করেই ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন কর্তৃপক্ষ তাদেরকে সমাবেশ করার অনুমতি দিচ্ছে না।
সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ছাত্র সমাবেশের অনুমতি না দেয়ার দুপুর ১২টা থেকে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বরে বিক্ষোভ করছেন ছাত্র সমাবেশে আগত নেতাকর্মীরা। বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত হয়ে তারা অবস্থান নিয়ে নানা স্লোগান দিচ্ছেন।
দুপুর ২টায় এই প্রতিবেদন লেখা সময় দেখা গেছে, এখনো মূল অডিটরিয়ামের দরজা বন্ধ রয়েছে। দলের অসংখ্য নেতাকর্মীরা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট চত্বরে অবস্থান নিয়ে স্লোগানে স্লোগানে মুখরিত করে রেখেছেন। ছাত্রদলের জন্মদিন উপলক্ষে স্লোগান দিচ্ছেন।
এদিকে দুপুর সাড়ে ১২টায় নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত জরুরি সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাত্র সমাবেশ নির্ভিগ্নে সফল করতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামণা করেন।

  • আমাদের সময়.কম