মু’সলিম’রা ভা’রতের কোনও কাজে লাগেনি: যোগী আদিত্যনাথ

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১১:২২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২০ | আপডেট: ১১:২২:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২০

দেশভাগের পর মু’সলিম’রা ভা’রতে থাকায় দেশের কোনও উপকার হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেন, তাদের দেশভাগের বিরোধিতা করা উচিত ছিলো। কারণ দেশভাগের কারণেই পা’কিস্তান তৈরি হয়েছে।

ভা’রতের প্রায় ২০ কোটি মু’সলিমের এক চতুর্থাংশের বাস উত্তর প্রদেশে। ৪৭ বছর বয়সী যোগী আদিত্যনাথ ভা’রতের সবচেয়ে জনবহুল উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী। এক হিন্দু মন্দিরের পুরোহিত থেকে রাজনীতিতে উঠে এসেছেন এবং ভা’রতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) একজন প্রভাবশালী নেতা হিসেবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আস্থাভাজন হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। প্রায়শই তিনি লাগামহীন মন্তব্য করে ধ’র্মভিত্তিক উত্তে’জনা তৈরি করে থাকেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, মু’সলিম’রা দেশভাগের সময় পা’কিস্তান যায়নি এতে তারা কোনও উপকার করেনি। দিল্লির শাহিনবাগে হওয়া আ’ন্দোলন নিয়ে আদিত্যনাথ বলেন, একটা নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের মানুষ নারী ও শি’শুদের আ’ন্দোলনে পাঠিয়ে নিজেরা কাপুরুষের মতো লুকিয়ে ছিল। ভা’রতে সবার শান্তিপূর্ণ আ’ন্দোলনের অধিকার আছে স্বীকার করে তিনি দাবি করেন, শাহিনভাগে শান্তিপূর্ণ আ’ন্দোলন হয়নি। দিল্লির একটি প্রধান সড়কে অবস্থান নেওয়ার কারণে তার প্রভাব পড়ছে যান চলাচলে।

ভা’রতের সংসদে পাস হওয়া সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (সিএএ) বি’রুদ্ধে ভা’রতজুড়ে শিক্ষার্থী জনতার আ’ন্দোলন চলছে। তারই অংশ হিসেবে, দিল্লির শাহীনবাগে মু’সলিম নারীরা অবস্থান নিয়েছেন।