রাজাপুরে কিশোরী ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

প্রকাশিত: ৭:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২০ | আপডেট: ৭:১০:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০২০

ঝালকাঠির রাজাপুরে ষষ্ঠ শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১২) গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত সাগর খান (১৮) ও হেমায়েত খলিফা (৪০) নামে দুইজনকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
রাজাপুর থানার ওসি জাহিদ হোসেন জানান, রোববার সকালে ওই কিশোরীর বোনের সন্তান প্রসবের কারণে মা স্থানীয় একটি ক্লিনিকে যায়। বাড়ির সামনে কিশোরী একা দাঁড়িয়ে ছিলো। এসময় জোর করে প্রতিবেশী জালাল হাওলাদার ও সাগর খান স্থানীয় হেমায়েত খলিফার বাড়িতে নিয়ে যায়। ওই বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে বাড়ির মালিক হেমায়েতসহ তিনজনেই পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে এ ঘটনা কাউকে না বলতে মেয়েটিকে ভয়ভীতি দেখানো হয়। এমনকি এ কথা কাউকে জানালে মেয়েটিকে মেরে ফেলা হবে বলেও হুমকি দেয় তারা। মেয়েটি সেখান থেকে ফিরে এসে বিষয়টি পরিবারকে জানায়। এ ঘটনায় মেয়েটির মা মঙ্গলবার রাতে রাজাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার করে। বুধবার বিকালে ঝালকাঠির সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ আনিসুজ্জামান দুই আসামীর জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে তাদেরকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।
কিশোরীর মা জানান, অভিযুক্তরা বখাটে প্রকৃতির লোক। কোন ঘটনা ঘটলে তাদের ভয়ে এলাকায় কেউ মুখ খুলতে সাহস পায় না। আমার মেয়েকে তিনজনে মিলে ধর্ষণ করেছে। আমি বিষয়টি জানার পরে থানায় মামলা করেছি। এ ব্যাপারে রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ জানান, ঘটনার সাথে জড়িত দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামী হেমায়েতকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।