১২ ডিসেম্বর ঝালকাঠি জেলা আ.লীগের সম্মেলন

প্রকাশিত: ৭:০৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯ | আপডেট: ৭:০৬:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯

১২ ডিসেম্বর বৃহষ্পতিবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঝালকাঠি জেলা আ’লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন আ’লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ঝালকাঠি-২ আসনের এমপি আমির হোসেন আমু। এ সম্মেলনকে ঘিরে নতুন নেতৃত্বের জল্পনা কল্পনায় আছেন নেতা কর্মীরা। গত ৯ ডিসেম্বর সদর উপজেলা সম্মেলনেও চমক দেখেছেন নেতা কর্মীরা। এ কাউন্সিলে সভাপতি আবদুর রশিদ পুনুরায় নির্বাচিত হলেও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে চমক দেখান শহর যুবলীগের আহবায়ক হাফিজ আল মাহামুদ। জেলা আ’লীগের কাউন্সিলেও এ ধরনের চমক থাকতে পারে বলে ধারনা করছেন নেতা কর্মীরা।
জেলা সভপতি পদে প্রার্থী হিসেবে মঙ্গলবার পযর্ন্ত বর্তমান সভাপতি সরদার মো: শাহআলম ও জেলা আ’লীগের সহসভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান খান আরিফুর রহমান জেলা আ’লীগে সিনিয়র সহসভাপতি ছিদ্দিকুর রহমানের নাম জানা গেছে। এ বিষয় খান আরিফুর রহমান বলেন, আমি বিশ্বাস করি সংগঠনকে সুসংগঠিত করার জন্য আমার লিডার আমির হোসেন আমু আমাকে গুরুত্বপূর্ন পদে বসাবেন। সাধারণ সম্পাদক পদে এ পযর্ন্ত বর্তমান সাধারণ সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক কেন্দ্রীয় সদস্য মেজবাহ উদ্দিন খানের নাম জানা গেছে। এ প্রসঙ্গে খান সাইফুল­াহ পনির বলেন, আমার কোন চাওয়া পাওয়া নেই, দল ্আামাকে যে দায়িত্ব দেবে সেটাই আমি পালন করবো। মেজবাহ উদ্দিন খান বলেন, জেলা আ’লীগে পরিবর্তন আসা দরকার। এই কমিটি দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছে। তাছাড়া সভাপতির অনেক বয়স তাই আমি মনে করি পনির ভাইকে সভাপতি করলে সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন মুখ আসতে পারে। আমার নেতা আমির হোসেন আমুর কাছে আমি জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ প্রত্যাশি বলে জানিয়েছি।
এদিকে শহর আ’লীগের পূর্ব নির্ধারিত সম্মেলন ১২ ডিসেম্বর থাকলেও জেলা সম্মেলনের কারনে তা হচ্ছেনা। তবে একটি সূত্র জানায়, জেলা সম্মেলনেই শহর আ’লীগের কমিটিও ঘোষনা করা হবে। শহর কমিটিতে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মাহাবুর হোসেন ছাড়াও প্রার্থী সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা এ্যাড. রুহুল আমিন রিজভী ও জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক রেজাউল করিম জাকিরের নাম নাম জানা গেছে।

এ ব্যাপারে জেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক তরুন কর্মকার বলেন, জেলা ও শহর কমিটিতে যারা বর্তমানে দায়িত্বে আছেন তাদের প্রতি আমাদের আস্থা রয়েছে। তারপরেও আমাদের অভিভাবক আমির হোসেন আমু যাকে যে পদে ভালো মনে করবেন সেভাবেই সবকিছু হবে।