ঝালকাঠিতে ‘ধিক্কার দিবস’ পালিত

প্রকাশিত: ৫:১১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৯ | আপডেট: ৫:১১:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৯

ঝালকাঠি প্রেস কাবে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ধিক্কার দিবস পালিত হয়েছে। ২০০৩ সালের এ দিনে তৎকালীন বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের কতিপয় নেতাকর্মীরা প্রেস কাবে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও সাংবাদিকদের মারধর করে। জেলার চারটি প্রেস কাবের সাংবাদিকরা দিনটি ‘ধিক্কার দিবস’ হিসেবে পালন করে। এ উপলে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। রোববার বেলা ১১টায় প্রেসকাবে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রেস কাবের সভাপতি কাজী খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা চিত্তরঞ্চন দত্ত ও মু. আব্দুর রশীদ, সহসভাপতি শ্যামল সরকার ও আক্কাস সিকদার, সাধারণ সম্পাদক মানিক রায়, সাবেক সাধারণ সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন হিমু, সহসাধারণ সম্পাদক কে এম সবুজ, সদস্য রতন আচার্য্য, অলোক সাহা ও শফিউল ইসলাম সৈকত।
প্রসঙ্গত তৎকালীন মতাসীন চারদলীয় জোট সরকারের সময় টেন্ডার সংক্রান্ত দুর্নীতির একটি সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় সাংবাদিক মো. হুমায়ূন কবিরকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনার প্রতিবাদে ২০০৩ সালের এ দিনে (৮ ডিসেম্বর) ঝালকাঠির সাংবাদিকরা মৌনমিছিল ও জেলা প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি পেশের কর্মসূচি নিলে জেলা বিএনপির একটি গ্রæপ পুলিশের উপস্থিতিতে ঝালকাঠি প্রেস কাব এবং বরিশালের সাংবাদিকদের বহনকারী একটি মাইক্রোবাসে হামলা চালায় ও ভাংচুর করে। এ সময় ঝালকাঠি ও বরিশালের ৭ জন সাংবাদিক আহত হন। পরে তারা ১০ জন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও মিছিলে হামলা করার মিথ্যা অভিযোগ এনে থানায় উল্টো মামলা দায়ের করে।