দশমিনায় ধানের দরপতনে দিশেহারা কৃষক

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৩:১৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৭ | আপডেট: ৩:১৪:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৭
দশমিনায় ধানের দরপতনে দিশেহারা কৃষক

দশমিনা (পটুয়াখালী) থেকে সঞ্জয় ব্যানার্জী ॥ পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলা স্থানীয় বাজারে ধানের দরপতন হতে দেখা গেছে। সম্প্রতি অতিরিক্ত বৃষ্টির পানিতে ধানক্ষেত তলিয়ে যাওয়ায় ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কিত প্রতিবেদন দিয়েছে উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর। উপজেলায় গত কয়েক দিন আগে টানা তিনদিনের বর্ষণে আমন ধান, বোরো বীজতলা ও রবি ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ফলে উপজেলার কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি অধিদপ্তর কৃষকদের যে ক্ষতি দেখিয়েছেন তার কয়েক গুন ছাড়িয়ে যাবে বলে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা জানিয়েছেন।

সূত্র জানায়, গত তিন দিনের বৃষ্টিতে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে আমন চাষিরা। নিচু জমির ধান তলিয়ে গেছে পানিতে। জমি থেকেই ধান তুলতে পারছেনা কৃষকরা। এদিকে, গতকাল শুক্রবার রনগোপালদী হাটের দিনে ধানের দরপতন হয়েছে। যে ধান ১০৫০ টাকা ছিল, সেই ধান ৭৮০ থেকে ৮৪০ টাকায় বেঁচা কেনা হয়েছে বলে ব্যবসায়ী মো.জাহাঙ্গির মৃধা জানিয়েছেন।
কৃষি অফিসের প্রতিবদেনে রোপা আমন, গম, তরমুজ, খিরাই, আলু, খেসারী, মসুর, ফেলন, সরিষা, মরিচ, রোসুন, ধনিয়া, শসা, শাক সবজি জমির পানিতে তলিয়ে থাকায় নষ্ট হয়ে কৃষকদের ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নিরুপন করছে উপজেলা কৃষি বিভাগ। উপজেলায় প্রান্তিক, ক্ষুদ্র, মাঝারী কৃষক রয়েছে। এ উপজেলায় খেসারী, ফেলন, শাক সবজি, আলু, তরমুজের আবাদ বেশী হয়ে। উপজেলায় খেসারী ডাল প্রায় কৃষক জমিতে আবাদ করেছে , তবে ক্ষতিগ্রস্ত শতকরা সামন্য দেখানো হয়েছে।
৬নং বাঁশবাড়িয়া ইউনিনেয়র দ:দাস পাড়া গ্রামের কৃষক সংকর চন্দ্র জানান, তার ২একর জমিতে খেসারী ডাল সম্পূর্ণ নষ্ট হয়েছে। এ কৃষি অফিসের প্রতিবেদন ভিত্তিহীন বলেও দাবি করেন অথচ বগুড়া গ্রামের মো.নসা মিয়ার নতুন করে আলুর বীজ বপন করেছেন। এ বৃষ্টিতে সম্পূর্ণ নষ্ট হয়েছে। আলুর বীজ গজানোর কোন সম্ভাবনা নেই। আলুর ফলন ফলাতে হলে নতুন করে শুরু করতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। কৃষকরা জানান, উপজেলায় যে ফলনের আবাদ হয়েছে তা আংশিক নয়, পুরোটাই নষ্ট হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার বনি আমিন খান জানান, মাঠ পর্যায় থেকে তথ্য সংগ্রহ করে এ প্রতিবেদন তৈরী করা হয়েছে। উপজেলার কৃষকরা যাতে মাঠ পর্যায়ের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের সাথে সবসময় যোগাযোগ রক্ষা করে সে ব্যাপারে সচেতন হওয়ার জন্য পরামর্শ দেন তিনি।