ঝালকাঠির চার উপজেলায় আওয়ামীলীগের কাউন্সিল রাজাপুর ও কাঁঠালিয়ায় ৫ ডিসেম্বর, নলছিটিতে ৬ ডিসেম্বর এবং সদর উপজেলায় ৯ ডিসেম্বর

প্রকাশিত: ১০:৩৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৩৫:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯

ঝালকাঠির ৪টি উপজেলায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগের তৃ-বার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনকে ঘিরে নেতা-কর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থী হওয়ায় কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করার দাবি তৃণমূল নেতা-কর্মীদের। যোগ্য ও দলের জন্য ত্যাগ স্বীকার করেছেন; এমন প্রার্থীকে গুরুত্বপূর্ণ পদে দেখতে চান তারা। তবে প্রার্থীরা তাকিয়ে আছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য, শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আমু এমপি’র নির্দেশের দিকে। তিনি যাকে যোগ্য মনে করবেন তাকেই নির্বাচন করবেন বলে মনে করেন পদ প্রত্যাশীরা।
দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২২ মে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঝালকাঠির রাজাপুর ও কাঠালিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল। এরপর বৃহস্পতিবার (৫ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে রাজাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের তৃ-বার্ষিক সম্মেলন। রাজাপুর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় এ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন ঝালকাঠি-২ আসনের সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু এমপি। সভাপতিত্ব করবেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখেরহাট ইউপি চেয়ারম্যান ও রাজাপুর উপজেলা সমন্বয়কারী নুরুল আমীন খান সুরুজ। রাজাপুর উপজেলা কাউন্সিলের পোস্টারে শুধু এ দুজনের নামই উলে­খ করা হয়েছে। জেলার রাজাপুর ও কাঠাঁলিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত ঝালকাঠি-১ আসনের সংসদ সদস্য ও ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক (বিএইচ) হারুনের নাম পোস্টারে উলে­খ করা হয়নি। তবে এ উপজেলার চিত্র একটু ভিন্ন। কাউন্সিলকে ঘিরে ইতোমধ্যেই পদ প্রত্যাশীরা তৃনমূল নেতা কর্মীদের সাথে ব্যাপক যোগাযোগের পাশাপাশি দলীয় হাই কমান্ডে জোর লবিং তদ্বির চালিয়ে যাচ্ছেন। তৃণমূলসহ দলের অনেক নেতা-কর্মীই মনে করেন, রাজাপুরে একাধিক গ্র“প থাকায় দলের মধ্যে কোন শৃঙ্খলা নেই। তাই কাউন্সিলের মাধ্যমে নতুন কমিটি নিয়ে অনেকটাই দল গুছানোর প্রত্যাশী স্থানীয় শীর্ষ নেতারা। দলীয় বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, কাউন্সিলে সভাপতি পদে বর্তমান উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি স্থানীয় সাংসদ বজলুল হক হারুন এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির আহŸায়ক খায়রুল আলম সরফরাজও সভাপতি পদ প্রত্যাশী। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদে জেলা আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সঞ্জিব কুমার বিশ্বাস, উপজেলা আওয়ামীলীগ সহসভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিলন মাহমুদ বাচ্চু, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান জিয়া হায়দার খান লিটন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা আক্তার লাইজু প্রার্থী হয়েছেন। প্রার্থীরা চাইছেন ভোটের মাধ্যমে তৃণমূল নেতা-কর্মীরা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচত করুক, যাতে দলের মধ্যে কোন কলহের সৃষ্টি না হয়।
একইদিন বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে কাঁঠালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন। উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে সম্মেলন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন ঝালকাঠি-২ আসনের সংসদ সদস্য শিল্পমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আমু এমপি। সভাপতিত্ব করবেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর উপজেলার নবগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান ও কাঠালিয়া উপজেলা সমন্বয়কারী মুজিবুল হক আকন্দ সুরুজ। এ উপজেলায় আওয়ামী লীগের সভাপতি পদে লড়ছেন সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া সিকদার ও সাবেক সাধারন সম্পাদক হাবিবুর রহমান উজির সিকদার। সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন চারজন। এর মধ্যে রয়েছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ব্যবসায়ী তরুণ সিকদার, বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান এমাদুল হক মনির, জেলা আওয়ামীলীগের শিা বিষয়ক সম্পাদক অধ্য আবুল বাশার বাদশা, স্থানীয় শৌলজালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহামুদ হোসেন রিপন। প্রার্থীরা চাইছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য, শিল্পমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আমু এমপি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুন যাকে চাইবেন তিনি হবেন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। তবে নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী কাউন্সিলরদের ভোটের মাধ্যমে যোগ্য নেতৃত্ব নির্বাচনের সুযোগ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।
অপরদিকে শুক্রবার (৬ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে নলছিটি উপজেলা। সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার খবরে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মাঝে বইছে আনন্দের জোয়ার। চলছে উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে কর্মী সম্মেলন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য, শিল্পমন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আমু এমপি। সভাপতিত্ব করবেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও পৌর মেয়র তছলিম উদ্দিন চৌধুরী। এ উপজেলায় সভাপতি পদে লড়ছেন বর্তমান সভাপতি ও পৌর মেয়র তছলিম উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক সভাপতি ও জেলা পরিষদ সদস্য ওয়াহেদ কবির খান, জেলা আওয়ামীলীগ প্রচার সম্পাদক অ্যাড এম আলম খান কামাল, শহর আ’লীগ সভপতি ডা. এসস্কেন্দার আলী খান ও জেলা পরিষদ সদস্য খন্দকার মজিবুর রহমান। সাধারন সম্পাদক পদে প্রার্থী রয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হোসেন আকন খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক আখতারুজ্জামান বাচ্চু ও সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান দুলাল শরীফ।
ঝালকাঠি সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৯ডিসেম্বর। শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে সকাল ১০টায় এ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এতে সভাপতি পদে একক প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। বর্তমান সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি, জেলা পরিষদ সদস্য ও কেওড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ হাওলাদার। সাধারন সম্পাদক পদে ৬ জনের নাম শোনা যাচ্ছে। তারা হলেন বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক ও নথুল­াবাদ ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল কবীর, সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান জেলা পরিষদ সদস্য সাইদুর রহমান সেন্টু, সাবেক চেয়ারম্যান সরদার মোঃ জাহাঙ্গির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হোসেন লাভলু, জেলা যুবলীগের সাবেক আহŸায়ক খসরু নোমান, যুবলীগ নেতা ও পৌর কাউন্সিলর হাফিজ আল মাহমুদ।