‘চেষ্টা করলে ভারতকে ব্যাটিং করানো যাবে’

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:৫৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৫৯:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০১৯

কলকাতায় দিবারাত্রি টেস্টে দ্বিতীয় দিন শেষে সবার মুখে একটাই প্রশ্ন। লক্ষ্য এখনও আকাশচুম্বি। করতে হবে ৯০ রান। তাহলেই কোহলিদের আরেকবার দেখা যাবে ২২ গজে। নয়তো আরেকটি ইনিংস পরাজয়ের মঞ্চ প্রস্তুত আছে বাংলাদেশের জন্য!

ইডেনে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসে করা ১০৬ রানের জবাবে ভারত ৯ উইকেটে তোলে ৩৪৭ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে আবার নড়বড়ে ব্যাটিং। ৬ উইকেটে দলীয় রান ১৫২। এখনও পিছিয়ে ৮৯ রানে। ব্যাটিং ব্যর্থতায় বাংলাদেশ আরেকটি টেস্ট পরাজয়ের দ্বারপ্রান্তে! অসম্ভাবিক কিছু না হলে ইনিংস ব্যবধানে হারতে পারে টিম বাংলাদেশ।

মুশফিক ৫৯ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেছেন। তার সঙ্গে ব্যাটিংয়ে থাকবেন আবু জায়েদ রাহী, ইবাদাত হোসেন, আল-আমিন হোসেন ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। রিয়াদ ৩৯ রানের ইনিংস খেলে হ্যামস্ট্রিং চোটে ফিরেছেন সাজঘরে। তৃতীয় দিন তার ব্যাট করার বিষয়ে আশাবাদী টিম ম্যানেজম্যান্ট। দেখার বিষয় মুশফিক ও মাহমুদউল্লাহর জুটি ভারতকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামাতে পারে কিনা।

দ্বিতীয় দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন আল-আমিন। জানালেন ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠাতে চেষ্টার কোনো ক্রুটি রাখবেন না তারা, ‘গোলাপি বলে এক থেকে ৩০ ওভার খেলা কঠিন। যখন বলটা ভিজে যাচ্ছে তখন আর কিছুই হচ্ছে না। আমরা কঠিন সময়টা পার করে দিয়েছি। ইনিংস হার এড়াতে আমাদের আরও ৮৯ রান করতে হবে। আমরা যারা টেল-এন্ডার আছি তারা সবাই মিলে চেষ্টা করব ভারতকে আবার ব্যাট করানোর জন্য।’

বাংলাদেশের মতো ভারতও প্রথমবারের মতো খেলছে গোলাপি বলের টেস্ট ক্রিকেট। ভারত যেখানে পারফরম্যান্সে দারুণ কিছু করে দেখিয়েছে সেখানে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স তলানিতে। কোথায় পিছিয়ে বাংলাদেশ? কেনই বা পারছে না? আল-আমিনের সোজাসাপ্টা উত্তর, ‘অভিজ্ঞতা কারণে বলতে পারেন।’

তবে কৃত্রিম আলোয় গোলাপি বলে মানিতে নিতে সময় লাগছে বলে নিশ্চিত করেছেন বোলিংয়ে ৩ উইকেট পাওয়া এ পেসার, ‘লাল বল ও গোলাপি বল ভিন্ন বল। সব মিলিয়ে এত ক্রাউড, আলোর নিচে…ওরা ভালোভাবে মানিয়ে নিয়েছে। আমাদের সময় লাগছে। ’