শার্শায় ভেড়া ও এক লাখ ছাগলের পিপিআর মুক্তকরণে টিকা দেয়া হচ্ছে

প্রকাশিত: ৩:১৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৯ | আপডেট: ৩:১৭:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২০, ২০১৯

যশোরের শার্শায় ১৩ দিন ব্যাপী ছাগল ও ভেড়ার প্রাণঘাতি সংক্রামক পিপিআর রোগ মুক্তকরণের টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন ও প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের সার্বিক সহযোগিতায় উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের ৯০টি ওয়ার্ডে ১৮০টি ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পের মাধ্যমে এ বছর এক লাখ ছাগল, ভেড়াকে প্রাণঘাতি সংক্রামক রোগ পিপিআর মুক্তকরণের টিকাদান কর্মসূচি আগামী ২৬ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা জয়দেব কুমার সিংহ জানান, টিকাদান কর্মসূচি সফল করার জন্য উপ-সহকারী প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা, এ আই টেকনিশিয়ান, স্বেচ্ছসেবীসহ ৬০ জন টেকনিশিয়ান দায়িত্ব পালন করছেন।

এ কর্মসূচি শুরু হওয়ার পূর্বে টিকা দান কর্মসূচি ক্যাম্প, সময় ও টিকাদানের তারিখ নির্ধারণ করে মাইকিং করা হয়। যাতে ছাগল ও ভেড়ার মালিকরা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পে ছাগল ভেড়াকে টিকা দিতে পারেন।

জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ভবতোষ কান্তি বলেন, সরকারি নির্দেশনা মতে জেলার ৮টি উপজেলায় গত ১৩ অক্টোবর থেকে ছাগল ভেড়ার প্রাণঘাতি সংক্রামক রোগ পিপিআর মুক্তকরণের জন্য এ টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। প্রতিটি উপজেলায় নির্দিষ্ট সংখ্যক টেকনিশিয়ান নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়া স্ব-স্ব উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তারা সার্বিক দেখভাল করছেন।

কোনো কারণে ছাগল, ভেড়া টিকাদান কর্মসূচিতে বাদ পড়ে গেলে পরবর্তীতে নির্ধারিত সময়ে পিপিআর মুক্ত টিকা দেয়া হবে।

টিকাদান কর্মসূচির ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পে আসা একাধিক ছাগল, ভেড়ার মালিকগণ বলেছেন বছরে দু-বার টিকা দিলে প্রাণঘাতি সংক্রামক ব্যাধি পিপিআর চিরতরে বিদায় নেবে। তা না হলে পিপিআর রোগ থেকেই যাবে।