গত দশ বছরে দেশে শুধু লুট আর হরিলুট হয়েছে- রাশেদ খান মেনন এমপি

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:০২ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৫, ২০১৯ | আপডেট: ৭:০৩:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৫, ২০১৯

মুলাদী প্রতিনিধি ॥

ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি সাবেক মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন গত দশ বছরে দেশের নিচেরতলা থেকে শুরু করে উপরতলা পর্যন্ত শুধু লুট, লুট আর হরিলুট হয়েছে। টিআর এর গম লুট, রাস্তার ইট লুট, প্রকল্পের টাকা লুট, জিডিপির টাকা লুট, বড় বড় প্রকল্পে লুটপাট হয়েছে।

 

তিনি গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় শহীদ আলতাফ মাহমুদ অডিটরিয়ামে মুলাদী উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। তিনি আরও বলেন দেশের দূর্ণীতির মুলোৎপাটনের জন্য ১৪দল গঠন করা হয়েছিলো। সেই দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিন্তু গত ১০ বছরে আমরা সেই লক্ষ্য অর্জন করতে পারিনি। আমরা দেশের উন্নয়নের জন্য অনেক বড় বড় প্রকল্প করেছি। সেই বড় বড় প্রকল্পে বড় বড় দূর্ণীতি হয়েছে।

 

বালিশ ক্রয়, বালিশের ওয়্যার, বালিশ নিচতলা থেকে কক্ষে উঠাতে খরচের নামে দূর্ণীতি হয়েছে। শুধুমাত্র কয়েকটি ক্যাসিনো-জুয়া বন্ধ করলেই হবে না। দেশের সকল পর্যায়ের অনিয়ম ও দূর্ণীতি বন্ধ না করলে স্বাধীনতার লক্ষ্য উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না। এছাড়া দেশের উন্নয়নে নারীদের সম্পৃক্ত করতে হবে। ধর্ষন, নারী নির্যাতন বন্ধ করে তাদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ করে দিতে হবে। যারা মাথার ঘাম পায়ে ফেলে কাজ করে তাদের সম্মান দিতে হবে। তাহলেই দেশের কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জিত হবে। সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম.এ গফুর মোল্লা।

 

উপজেলা ক্ষেতমজুর ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক এসআই সুজনের পরিচালনায় সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন বরিশাল জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি অধ্যাপক নজরুল হক নীলু, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট শেখ টিপু সুলতান, কোষাধ্যক্ষ মাজহারুল হক, কেন্দ্রিয় যুবমৈত্রীর সহ-সভাপতি সুজন আহমেদ, মুলাদী পৌর ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল হক সেন্টু আকন, ওয়ার্কার্স পার্টির গাছুয়া ইউনিয়ন শাখা সম্পাদক সবুজ মাতুব্বর, চরকালেখান ইউনিয়ন ওয়ার্কার্স পার্টির শাখা সম্পাদক খোকন বেপারী, কাজিরচর ইউনিয়ন ওয়ার্কার্স পার্টির শাখা সম্পাদক মোতালেব বেপারী, সফিপুর ইউনিয়ন ওয়ার্কার্স পার্টির শাখা সম্পাদক লুৎফর রহমান সরদারসহ উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির নের্তৃবৃন্দ।

 

সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্যায়ে কমরেড এম.এ গফুর মোল্লাকে সভাপতি, মোঃ মোতালেব বেপারীকে সাধারণ সম্পাদক করে ৯সদস্য বিশিষ্ট উপজেলা ওয়ার্কার্স পার্টির কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন সবুজ মাতুব্বর, খোকন বেপারী, কাঞ্চন রাঢ়ি, নান্নু প্যাদা, জাকির হোসেন মাল, সিরাজুল হক সেন্টু ও সুলতান শেখ। এছাড়া মহসিন সরদার, ফারুক আকন, এসআই সুজন, শান্তি রঞ্জন দাসকে বিকল্প সদস্য করা হয়।