শার্শা উপজেলায় এবার ২৯ জায়গায় শারদীয় পূজার আয়োজন

প্রকাশিত: ৬:৫৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৫৩:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৯

যশোরের শার্শা উপজেলায় এবার ২৯ জায়গায় বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা আয়োজন করা হয়েছে।  গত বছর এর সংখাছিল ৩০টি। শার্শার হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে একটি এলাকায় আভ্যন্তরিন দ্বন্ধ মিটে যাওয়ায় এ বছর ১টি কমেছে।

হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজায় শার্শা উপজেলা ও বেনাপোল পৌর সভায় মন্ডপগুলোতে পূজা শুরু হয়েছে । 

এ বছর শার্শা উপজেলায় ২৯টি মন্ডপে শারদীয় দূর্গা পূজা হবে। এর মধ্যে রয়েছে শার্শায় ২৫টি ও বেনাপোল পৌর সভায় ৪টি। শার্শার ১নং ডিহি ইউনিয়নে কোন বছর দুর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হয়নি। তবে এ বছর শার্শার লক্ষনপুর ইউনিয়নে ২ স্থানে, বাহাদুরপুর ২টি, পুটখালি ৪টি, গোগা ২টি, কায়রা ৩টি, বাগআঁচড়া ২টি , উলাশী ১টি ও বেনাপোল পৌর সভায় ৪টি স্থানে পুজা অনুষ্ঠিত হবে। 

এ ব্যাপারে শার্শা ও বেনাপোল পূজা উৎযাপন পরিষদের সভাপতি শ্রী বৈদ্যনাথ দাস বলেন এ বছর শার্শা ও বেনাপোলে ২৯টি স্থানে শারদীয় দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে । তিনি জানান সুন্দও ভাবে পুজা শুরু হয়েছে। তিনি বলেন এ বছর প্রতিটি পুজা মন্ডপে সরকারী অনুদান হিসেবে ৫০০ কেজি করে চাল বরাদ্ধ পেয়েছি।

এ ব্যাপারে শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ মুঃ আতাউর রহমান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন শার্শার সকল পুজা মন্ডপের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য আইন শৃঙ্খলা বাহীনি দায়িত্বে রয়েছে। মন্ডপগুলোতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্ঠিকারীকে ধরে আইনে সোপর্দ করা হবে। সে যেই হোক তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি প্রতিটি পূজা মন্ডপে আইন শৃঙ্খলা বাহীনিকে সহায়তা করতে সকলের প্রতি আহবান জানান। 

এ ব্যাপারের শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন পুজা মন্ডপ গুলোতে সার্ভিক নিরাপত্তা দিতে আইন শৃঙ্খলা বাহীনির সাথে আনসার ও ভিডিপি, গ্রাম পুলিশ, সেচ্ছাসেবক টিম, মোবাইল টিম থাকবে বলে জানান।