নলছিটিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১১টি বসত ঘর পুড়ে ছাই

প্রকাশিত: ৪:৪৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৭ | আপডেট: ৪:৪৬:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৭

 

ঝালকাঠির নলছিটি পৌর এলাকার খাসমহল পুকুরপাড় বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১১টি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বুহষ্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বস্তির বাসিন্দা নলছিটি পৌরসভার মালি নিমাই’র ঘর থেকে এ অগ্নিকান্ডের সূত্রপাত হয় বলে ভূক্তভোগীরা জানায়। এতে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

খবর পেয়ে সাথে সাথে নলছিটির ফায়ার সার্ভিস ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় দেড় ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। শেষদিকে রাত সাড়ে সাতটার দিকে বরিশাল ও ঝালকাঠি থেকে ফায়ার সার্ভিসের আরও দু’টি যোগ দেয়। এতে বস্তি বস্তিও প্রায় শতাধিক ঘর রক্ষা পায়। ইতিমধ্যে ১১টি বসত ঘর আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায় এবং ৩টি ঘর আংশিক পুড়ে যায়।

রাতেই ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক হামিদুল হক, পুলিশ সুপার জোবায়দুর রহমান, নলছিটি পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আ’লীগের সভাপতি তছলিম উদ্দিন চৌধূরি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আশরাফুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পৌর মেয়রের পক্ষ থেকে রাতে প্রতি ঘরের বাসিন্দাদের জন্য ৩টি করে কম্বল এবং শুক্রবার পরিবারের নিত্যবাবহার্য হাড়ি পাতিল বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়া ক্ষতিগ্রস্থদের ঘর নির্মাণের জন্য টিন বিতরণ করা হবে বলেও জানান মেয় তছলিম উদ্দিন চৌধূরি।

শুক্রবার সকালে নলছিটি ব্যাবসায়ি সমিতির সভাপতি মাহফুজ খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি পুড়ে যাওয়া ঘরগুলো পুণনির্মানে সহায়তার আশ্বাস দেন বলে ভূক্তভোগীরা জানায়।

ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, বস্তির বাসিন্দা নলছিটি পৌরসভার মালি নিমাই’র ঘর থেকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে এ আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।