জিএম নিউজে সংবাদ প্রকাশের পরে অপুর উপর হামলাকারী ৫ জন আসামী গ্রেপ্তার

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:২০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৯ | আপডেট: ১২:০৭:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯

চলচ্চিত্র কোরিওগ্রাফার মাইকেল বাবুর ছোট ভাই অপুকে আক্রমন কারী ৫ আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে মুগদা থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত আসীমারা হলো টাইগার, ডেবিট, এহসান আলিফ ও দ্বীন ইসলাম, এছাড়াও এখনো পালাতক রয়েছে আসিফ, চান, ও জাদু সহ আরো ৬ জন আসামী, এরা সবাই কিশোর গ্যাং আসিফ গ্রুপের সদস্য।

অপুর উপরে আক্রমনকারী পাঁচজন গ্রেপ্তার হবার পর আহত অপু থানায় গিয়ে তাদের সনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে। মুগদা থানার সেকেন্ড অফিসার খায়ের সাহেবও নিশ্চিত করেছেন যে এরা পাচজন সহ পালাতক ৬ জন মিলেই সেদিন অপুকে কুপিয়ে মারত্নক ভাবে জখম করেছে।

 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃত আসামীরা স্বীকার করেছে তাদের জড়িত থাকার কথা, এখন গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের যদি পুলিশ হেফাজতে কঠোরভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাহলেই পালাতক আসামীদের খোজ পাওয়া যাবে বলে মনে করেন অপুর পরিবার।

 

এই ব্যাপারে অপুর বড় ভাই বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের নৃত্য পরিচালক মাইকেল বাবু বলেন, “আমি মুগদা থানার প্রতি কৃতজ্ঞ যে আমার ভাইকে যারা কুপিয়ে মেরে ফেলতে চেয়েছিলো তাদের মধ্য থেকে পাঁচজন আসামীকে পুলিশ গ্রেপ্তার করতে স্বক্ষম হয়েছে, কিন্তু এখনো ছয়জন আসামী পালাতক রয়েছে, আর এরা সবাই আসিফ গ্রুপের সদস্য। আমার বিশ্বাস যে গ্রেপ্তারকৃত এই পাচ আসামিকে রিমান্ডের আওতায় নিয়ে আসা হলে আসিফসহ বাকী আসামীদের সন্ধান খুব তারাতাড়ি পাওয়া যাবে, এবং এদের গ্রেপ্তার সহজ হবে, আমার প্রাণপ্রিয় ছোটভাই অপুকে এমন ভাবে কুপিয়েছে যে সে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছে, তাদের উদ্দেশ্য ছিলো আমার ছোটভাইকে মেরে ফেলা, আল্লাহর অশেষ রহমাতে আমার ভাই বেচে আছে, আমি এই জগন্য অপরাধীদের কঠিন থেকে কঠিনতম শাস্তি দাবী করছি।”

উল্লেখ্য গত ২৫ আগস্ট বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আনুমানিক ৭.৩০ মিনিটের দিকে একদল তরুণ মাদকসেবী সন্ত্রাসী মুগদা মান্ডা খালপাড় নামক স্থানে বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় কোরিয়োগ্রাফার মাইকেল বাবুর স্নেহের আদরের ছোট ভাই অপু ও তার দুই বন্ধুকে একটি মোবাইলের জের দরে ধারালো চাঁপাতি দিয়ে এলো মেলো ভাবে তাদের কে কোপাতে শুরু করে, মাদকসেবী এই যুবকেরা সবাই ছিলো আসিফ গ্রুপের সদস্য।

যুবকদের মধ্যে নেতৃত্ব দেয় মান্ডার বখাটে মাদকসেবী ইপটেজার মোহাম্মদ আসিফ, ইমন যাকে সবাই হিংস টাইগার নামে জানে,উক্ত হামলায় সরাসরি আরো জড়িত ছিলেন, হাসিব, ঈসান, আলিফ, আরমান,সাব্বির,জাহিদ,কলিন,দিন ইসলাম,চাঁনও যাদু দুই ভাই সহ তাদের অনেক সহপাঠি নির্মম এই নিশংসয় নেক্কারজনক ঘটনাটি ঘটিয়েছেন। উক্কত ঘটনায় অপু সহ তিনজন গুরুতর আহত হয়। তিন জনের মধ্যে অপু বেশি গুরুতর আহত হয়েছিলো, তার পুরো শরীর চাঁপাতির আঘাতে খন্ড বিখন্ড হয়ে গিয়েছিলো, অপুর শরীরে ৩৫টির ও বেশি সেলাই করতে হয়েছিলো।

উক্ত ঘটনা কে কেন্দ্র করে বাদী পক্ষ মুগদা থানা তখনই মামলা দায়ের করেছিলো।