মাদারীপুরের ৪ বছরের শিশু ধর্ষনের বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

নাজমুল হক নাজমুল হক

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৫:৩১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২১, ২০১৯ | আপডেট: ১১:৫৩:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২১, ২০১৯

মাদারীপুর শহরের শকুনী এলাকায় ৪ বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনায় মামলা হলেও পুলিশ ধর্ষণ মামলা আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি। উল্টো মামলার বাদীকে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ বাদী পক্ষের। আজ দুপুরে মাদারীপুর শহরের সাংবাদিক কল্যাণ সমিতির কার্যালয়ে শিশুটির পিতা আসামীর গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেন।

সংবাদ সম্মেলন ও মামলার নথী সূত্রে জানা গেছে, শহরের শকুনী এলাকায় শাহাদাত হোসেন পলাশ বেড়াতে আসে এক আত্মীয়ের বাড়িতে। বাসায় কেউ না থাকায় সেই বাসারই ৪ বছরের এক শিশুকে চিপস খাওয়ানোর প্রলোভন দিয়ে ছাদে নিয়ে যায়। এরপর নির্জন ছাদে শিশুটিকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। আত্মীয়তার সুবাদে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। পরে মাদারীপুর সদর থানায় এই ঘটনায় মামলা হলেও আসামি গ্রেফতার হয়নি। নির্যাতিতা শিশুটির মা বলেন, আমার মেয়েকে ১৫ জুলাই দুপুরে বাসার ছাদে নিয়ে ধর্ষণ করেছে। যে ধর্ষণ করেছে সে আমার মামাতো ভাই। উনি এর আগে ৪টি বিয়ে করেছে। এরপর আত্মীয়রা বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়ার জন্য সময়ক্ষেপণ করে। আমি বিচার না পেয়ে থানায় মামলা করেছি। কিন্তু আসামি গ্রেফতার হয়নি। মামলার বাদী শিশুটির পিতা সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমার মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে কিন্তু পুলিশ আসামী ধরতে পারছেনা। উল্টো মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে। তিনি আরো বলেন, আসামি মীর হাজিরাবাগ এলাকায় থাকেন ও মাদারীপুর -হ ১১-৪১৪৪ এই নাম্বারের একটি মটর সাইকেল চালায়। আমরা আসামির গ্রেফতার ও বিচার চাই।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সদর থানার এসআই কবির হোসেন বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যেই আসামিকে গ্রেফতার করা হবে। আমরা গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।