শিশুদের ইন্টারনেট ব্যাবহারের সাথে বাড়ছে নিরাপত্তা ঝুঁকি

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১১:১৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১১, ২০১৭ | আপডেট: ১১:১৪:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১১, ২০১৭
শিশুদের ইন্টারনেট ব্যাবহারের সাথে বাড়ছে নিরাপত্তা ঝুঁকি

মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মজুমদার: সারাবিশ্বে ইন্টারনেট ব্যাবহারকারীদের প্রতি তিনজনের একজন শিশু হলেও তাদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থার অভাব বয়েছে। অনলাইনে শিশুরা যত বেশি সময় কাটাচ্ছে বিভিন্ন সাইবার অপরাধে জড়িয়ে পড়ার ঝুকিও তাদের তত বাড়ছে।

বিটিআরসির ২০১৬ সালের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে ১৫-১৯ বছর বয়সী শিক্ষার্থীর ৩.৫ শতাংশ শিশু ইন্টারনেট ব্যাবহার করছে।

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনেসকোর প্রতিবেদন, অনুযায়ী সাম্প্রতিক বছর গুলোতে বাংলাদেশে ইন্টারনেট ব্যাবহারকারীদের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। ইউসেকোর কর্মকতা শাকিল ফয়জুল্লাহ বলেন সে সাথে বেড়েছে সাইবার অপরাধে জড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি।

শিশুদের জন্য ইউনেস্কোর প্রধান ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বয়সের সঙ্গে অনপোযুগী বিষয় পর্ণ্যগ্রাফি, চরমপন্থায় উৎসাহ প্রদানকারী পোস্ট,এবং তারা যৌন হয়রানির শিকারও হতে পারে। অনেক সময় মাদক বিক্রি ও বিতরণের সঙ্গেও জড়িয়ে পড়তে পারে।

বাংলাদেশের শিশুরা এ ধরণের বিপদে পড়লে আইন শৃংখলা বাহিনীর কাছে যায় না। পুলিশের সাইবার ক্রইম বিভাগের ডেপুটি কমিশনার আলিমুজ্জামান বলেন, যত অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে তত অভিযোগ আমরা পাচ্ছি না।

মানবাধিকার সংস্থা আইন ও সালিশ কেন্দ্রের শিশু অধিকার বিভাগের প্রধান মাকসুদ মালিক বলেন, বিটিআরসি, ২০১২ সালের তথ্য প্রযুক্তি আইনে সাইবার জটিলতায় পড়লে অভিযোগ করার সুযোগ রয়েছে।

বাংলাদেশে বর্তমানে কয়েকটি বেসরকারি সংস্থা সাইবার অপরাধ রোধে কাজ করছে। তবে এ ক্ষেত্রে অভিবাবকদের সচেতনতার উপর জোর দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।