শেখ হাসিনা’র বিরুদ্ধে গিয়ে কোন লাভ হবে না: পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:০৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১, ২০১৯ | আপডেট: ৯:০৮:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১, ২০১৯

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি::

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র রিরুদ্ধে গিয়ে কারো কোন লাভ হবে না, স্বাধীনতার বিরুদ্ধে গিয়ে লাভ হবে না। কারন প্রধানমন্ত্রী ন্যায়ের পক্ষে, স্বাধীনতার পক্ষে, নারী নীতির পক্ষে ও গরীব-অসহায় মানুষের ভাগ্যের উন্নয়নে কাজ করছেন। বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান এর স্বেচ্ছাধীন তহবিল হতে নগদ অর্থ ও চেক বিতরণ এবং ২০১৮-২০১৯ইং অর্থবছরের নতুন তালিকাভ’ক্ত বয়স্ক, বিধবা/স্বামী নিগৃহীতা মহিলা ও প্রতিবন্ধী ভাতা বহি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তব্য পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান (এমপি) উপরুক্ত কথাগুলো বলেন। তিনি আরও বলেন, আমরা যারা রাজনীতি করি, আমরা দেশ ও দেশের জনগণের জন্য রাজনীতি করি। আমরা কখনও নিজেদের জন্য রাজনীতি করি না। বঙ্গবন্ধু’র সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র শুধু একটাই লক্ষ্য এই বাংলাদেশকে একটি ন্যায়ের রাষ্ট্রা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা আর আমরা সেই জন্য রাজনীতি করি। তিনি আরোও বলেন, ডেঙ্গু বিষয়ে প্রচার-প্রচারণা সহ নানাভাবে মানুষকে সচেতন করতে। সবার সহায়তায় ডেঙ্গু প্রতিরোধ করা সম্ভব। তিনি সবাইকে বাড়ির আঙ্গীনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা রাখা এবং সকাল-সন্ধ্যা মশারী ব্যবহার করার আহবান জানান।

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর পৌর শহরের আব্দুস সামাদ আজাদ অডিটোরিয়ামে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা সমাজ সেবা কার্যালয়ের আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহ্ফুজুল আলম মাসুমের সভাপতিত্বে ও উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. জয়নাল আবেদিনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জননেতা সিদ্দিক আহমদ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আতাউর রহমান, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আকমল হোসেন, সাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছা. ফারজানা বেগম, পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মো. আব্দুল মনাফ, জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ। এসময় জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রশীদ ভ’ঁইয়া, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মধু সুধন ধর, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক আবুল হোসেন লালন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাফরোজ ইসলাম মুন্না, সাধারন সম্পাদক শাহ রুহেল সহ দলীয় নেতাকর্মী, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা – কর্মচারী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। পরে পরিকল্পনামন্ত্রী বয়স্ক, বিধবা/স্বামী নিগৃহীতা মহিলা ও প্রতিবন্ধীদের মধ্যে চেক ও ভাতা বহি বিতরণ করেন।

এদিকে বিকালে রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে রানীগঞ্জ ও পাইলগাঁও ইউনিয়নের বন্যাদূর্গত লোকদের মধ্যে ত্রান সামগ্রী বিতরন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহ্ফুজুল আলম মাসুমের সভাপতিত্বে ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাফরুজ ইসলাম মুন্নার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আকমল হোসেন, সাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানা, পাইলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মখলুছ মিয়া, রানীগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাজী মো. সুন্দর আলী, সাধারন সম্পাদক ডা: ছদরুল ইসলাম প্রমুখ। উক্ত ত্রান বিতরণে উপরের অতিথিগন সহ উপজেলা আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতা,কর্মী ও দুই ইউনিয়নের হাজার খানেক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। পরে দুই ইউনিয়নের বন্যাদূর্গত লোকদের মধ্যে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করা হয়।##