ডেঙ্গু ছড়িয়ে পরছে সারা দেশে

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৯:৩১ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৩২:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০১৯

ডেঙ্গু এখন সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ছে। এ পর্যন্ত সারা দেশে তিন শতাধিক ডেঙ্গু রোগীর হদিস মিলেছে। এত দিন শুধু রাজ’ধানীবাসী ম’শা নিয়ে বিপদে থাকলেও এখন সারা দেশের মানুষ ডেঙ্গু আতঙ্কে রয়েছে।

দেশের বিভিন্ন স্থানে ডেঙ্গু আক্রান্ত অধিকাংশ মানুষেই রাজ’ধানী ঢাকাফেরত। শুধু কুমিল্লায় ডেঙ্গুর জীবাণুবাহী এডিস ম’শার লার্ভা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন সেখানকার সিভিল সার্জন।

রাজ’ধানীতে ডেঙ্গু রোগের পরীক্ষা-নিরীক্ষার ভালো ব্যবস্থাপনা থাকলেও দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলার হাসপাতালগুলোর জন্য এ রোগ অনেকটাই নতুন। তাই চিকিৎসা নিয়ে বেশ উদ্বিগ্ন তারা।

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীকে প্যারাসিটামল ছাড়া অন্য ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়া থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি বেশি বেশি তরল খাবার খাওয়ানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছে। শনিবার তথ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো এক বার্তায় এ কথা জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, বর্ষায় (এপ্রিল-অক্টোবর) ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ বাড়ে। এ সময় অধিক সতর্ক থাকুন। ডেঙ্গু জ্বরের বাহক এডিস মশা পরিষ্কার পানিতে বংশ বিস্তার করে। অফিস, ঘর ও আশপাশে পানি জমতে দেবেন না। যে কোনো পাত্রে জমিয়ে রাখা বা জমে থাকা পানি ৩ দিনের মধ্যে পরিবর্তন করুন। এডিস মশা সাধারণত দিনের বেলা কামড়ায়। যথাসম্ভব লম্বা পোশাক পরিধান করুন। দিনে ঘুমানোর ক্ষেত্রেও মশারি ব্যবহার করুন।

তীব্র জ্বর, মাথা ব্যথা ও মাংসপেশিতে ব্যথা, শরীরে লালচে দানা ইত্যাদি ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ হলেও সাম্প্রতিককালে এর ব্যতিক্রম পাওয়া যাচ্ছে। জ্বরে প্যারাসিটামল ব্যতীত অন্য ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। রোগীকে বেশি বেশি তরল খাবার খাওয়ান।

এ ব্যাপারে আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়েছে আরো ছয়জন। এর মধ্যে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাস’পাতালে পাঁচজন এবং বেসরকারি সিএসসিআর হাস’পাতালে একজন ভ’র্তি হয়েছে। এ নিয়ে ৪৯ জন ডেঙ্গু রোগী চলতি মাসে আক্রান্ত হয়ে নগরে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন হাস’পাতালে ভ’র্তি হয়। এর আগে ছয় মাসে (জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত) পাঁচজন আক্রান্ত হয়েছে। সব মিলিয়ে চট্টগ্রামে গত জানুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত ৫৫ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। চমেক হাস’পাতালের উপপরিচালক ডা. আখতারুল ইসলাম বলেন, এখন হাস’পাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ১৬ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন। এ ছাড়া ভ’র্তি হওয়া আরো কয়েকজন চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে চলে গেছে।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী বলেন, চলতি বছর ৫৫ জন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়েছে।

এদিকে চট্টগ্রামের ১৪টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিনা মূল্যে ডেঙ্গু রোগ পরীক্ষা করাবে সিভিল সার্জন কার্যালয়। এ জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে কিড বক্স আনা হচ্ছে। আজ এসব কিড বক্স চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয়ে আসবে বলে জানা গেছে।

কুমিল্লা : কুমিল্লায় ১৯ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। বর্তমানে তারা কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাস’পাতালে চিকিৎসাধীন। এদিকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে কুমিল্লায় ডেঙ্গুর জীবাণুবাহী এডিস ম’শার লার্ভা পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন জেলা সিভি’ল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান। গতকাল শনিবার বিকেলে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি। সিভি’ল সার্জন বলেন, ‘কুমিল্লার বাইরে থেকে আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত ১৯ জন ডেঙ্গু রোগী আমাদের কাছে এসেছে। আমরা চারদিকে খোঁজখবর নিচ্ছি। প্রচার-প্রচারণার পাশাপাশি নগরবাসীকে সচেতন করার চেষ্টাও চলছে।’

নোয়াখালী : শনিবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত নোয়াখালীতে ১৫ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তরা জেলার বিভিন্ন হাস’পাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। নোয়াখালীতে জেনারেল হাসপাতালসহ কোনো সরকারি হাস’পাতালেই ডেঙ্গু পরীক্ষার কোনো ব্যবস্থা নেই। তাই নিরুপায় হয়ে ডেঙ্গু রোগীদের ছুটতে হচ্ছে বেসরকারি হাস’পাতালে। আর এই সুযোগে হাসপাতালগুলো ডেঙ্গু পরীক্ষার নামে রোগীদের ‘পকেট কাটছে’। নোয়াখালী জেনারেল হাস’পাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম জানান, গত চার দিনে ডেঙ্গুর জীবাণু নিয়ে ১০ জন রোগী এ হাস’পাতালে ভ’র্তি হয়েছে। তবে তাদের সবাই ঢাকায় আক্রান্ত হয়ে জ্বর নিয়ে এ হাস’পাতালে ভ’র্তি হয়েছে।

চাঁদপুর : ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় চাঁদপুর জেনারেল হাস’পাতালে নতুন করে আরো সাতজন ভ’র্তি হয়েছে। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুর পর্যন্ত ২১ জন রোগী হাস’পাতালে ভ’র্তি আছে। দুই দিন ধরে চাঁদপুর জেনারেল হাস’পাতালে ডেঙ্গু রোগী আসতে শুরু করে। হাস’পাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আনোয়ারুল আজিম জানান, চাঁদপুর জেনারেল হাস’পাতালে মূলত ডেঙ্গু (ফিভার) জ্বরের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব। তবে ডেঙ্গু হেমোরাইজিং এবং ডেঙ্গু শকড্ সিনড্রোমের চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব নয়। এ ক্ষেত্রে এখন যারা ভ’র্তি আছে, তাদের সবাই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত।

রংপুর : রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাস’পাতালে গত শুক্রবার তিনজন ডেঙ্গু রোগী ভ’র্তি হয়েছে। গত কয়েক দিনে এ পর্যন্ত ১৩ জন ডেঙ্গু রোগী মেডিক্যালে চিকিৎসা নিচ্ছে বলে রমেক হাসপাতাল সূত্র জানায়। তারা সবাই ঢাকা থেকে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে রংপুর এসেছে। রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাস’পাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. দেবেন্দ্র নাথ বলেন, ডেঙ্গু আক্রান্তদের প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে তারা শঙ্কামুক্ত।

শেরপুর : শেরপুর জেলা হাস’পাতালে তিনজন ডেঙ্গু রোগী ভ’র্তি হয়েছে। তারা সবাই ঢাকা থেকে জ্বরে আক্রান্ত হয়ে শেরপুর আসার পর জেলা হাস’পাতালে ভ’র্তি হলে তাদের ডেঙ্গু ধরা পড়ে। জেলা হাস’পাতালের আবাসিক চিকিৎসক খাইরুর কবির সুমন বলেন, আমরা ডেঙ্গুর ব্যাপারে সতর্ক রয়েছি।

রাজশাহী : রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাস’পাতালে ক্রমেই ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। গতকাল শনিবার পর্যন্ত হাস’পাতালে ৩৬ জন ডেঙ্গু রোগী ভ’র্তি হয়েছে। তাদের মধ্যে সাতজন এ রোগে মারাত্মকভাবে আক্রান্ত।

জানা গেছে, হাস’পাতালে ভ’র্তি হওয়াদের অধিকাংশই ঢাকাতে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়। গতকাল হাস’পাতালের ডেঙ্গু কর্নারে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে ৩৬ জন রোগী ভ’র্তি আছে। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাদের অনেকেই ঢাকায় থাকত কিংবা ঢাকায় বেড়াতে গিয়েছিল। আর এতেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে তারা।

পাবনা : গত চার দিনে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ১২ জন পাবনা জেনারেল হাস’পাতালে ভ’র্তি হয়েছে। আক্রান্ত রোগীরা জানায়, ঢাকা থেকে ফেরার পরপরই তারা জ্বরে আক্রান্ত হয়। পরে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হলে রক্ত পরীক্ষা করে তাদের ডেঙ্গু ধরা পড়ে।

যশোর : গত এক সপ্তাহে যশোর জেনারেল হাস’পাতালে ১৯ জন ডেঙ্গু রোগী ভ’র্তি হয়েছে। এর মধ্যে ১৪ জন এখনো চিকিৎসাধীন। হাস’পাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটু জানান, যশোরে ডেঙ্গুর জীবাণু নেই। শুধু ঢাকাফেরতরাই ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাস’পাতালে ভ’র্তি হয়েছে। এ জন্য চিকিৎসার পাশাপাশি প্রতিরোধ ব্যবস্থায় জোর দেওয়া হচ্ছে।

কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত রোগী হাস’পাতালে ভ’র্তি হয়েছে। এ নিয়ে সরকারি হিসাবে কুষ্টিয়ায় গত ২০ দিনে ২৭ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হলো।

ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাস’পাতালে ২২ জন ডেঙ্গু রোগী ভ’র্তি রয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত সবাই ঢাকা থেকে এসেছে। হাস’পাতালের উপপরিচালক ডা. লক্ষ্মী নারায়ণ বলেন, চিকিৎসাধীন ২২ জন শঙ্কামুক্ত। ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসার ব্যাপারে আমরা বিশেষ যত্ন নিচ্ছি।

নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এ পর্যন্ত ২২ জন এ রোগে আক্রান্ত হয়েছে। ডেঙ্গু নিয়ে নারায়ণগঞ্জবাসীর মনে বাড়ছে উদ্বেগ। তবে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনসহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের লোকজন বলছেন, ডেঙ্গু নিয়ে নারায়ণগঞ্জে উদ্বেগ থাকলেও আমরা এর নিয়ন্ত্রণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে রেখেছি।

কিশোরগঞ্জ : জেলায় গতকাল শনিবার পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ১৯ জন চিকিৎসাধীন। এর মধ্যে বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাস’পাতালে ১৩ জন এবং কিশোরগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাস’পাতালে আরো ছয়জন ডেঙ্গু রোগী ভ’র্তি রয়েছে।

সুনামগঞ্জ : ঢাকা থেকে ডেঙ্গু জ্বর নিয়ে সুনামগঞ্জে এসেছেন তিনজন। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় ডেঙ্গু শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভি’ল সার্জন ডা. আশুতোষ দাস।

লক্ষ্মীপুর : গত তিন দিনে জেলা সদর ও রায়পুরে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৯ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। এদিকে গতকাল শনিবার বিকেলে লক্ষ্মীপুরের চকবাজার ও আশপাশ এলাকার ড্রেন-ডোবাগুলোতে পৌরসভার পক্ষ থেকে ম’শা নিধন স্প্রে করা হয়েছে।