সাজানো ধর্ষণ মামলার আসামী খালাস

প্রকাশিত: ১২:৫৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৩৮:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ধর্ষণের অভিযোগ এনে সাজানো মামলায় কলেজ ছাত্র রাসেলকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে ঝালকাঠি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-০১ আদালতের বিচারক মোঃ গাজী রহমান এ রায় দেন।
ঝালকাঠির নলছিটি পৌর এলাকার নাঙ্গুলী গ্রামের সুলতান খান এবং একই এলাকার বাবুল খান’র সাথে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ দীর্ঘ দিনের। বিরোধে দুজনেই প্রায় সমান প্রতিদ্ব›িদ্ব। কেউ কারো চেয়ে কম না। একে অপরকে ঘায়েল করতে একের পর এক ফন্দি আকেন। কিন্তু কোনটায়ই যেন কাজ হচ্ছিল না। উপায়ান্ত না পেয়ে বাবুল খান নিজ মেয়ে মীম (২০)কে ভিকটিম সাজিয়ে স্ত্রী জাকিয়া বেগমকে বাদী করে সুলতান খান’র পুত্র কলেজ ছাত্র রাসেলকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে নলছিটি থানায় একটি মামলা (নং-১৩, তারিখ-২৮-০৪-২০১৬ইং) দায়ের করায়। তদন্ত শেষে কলেজছাত্র রাসেলকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করে থানা পুলিশ। আদালতে মামলার বিচার কার্যক্রম শুরু হলে বাদী পরে মনোনীত স্বাীদের আদালতে স্ব্যাগ্রহণ ও আসামী পরে আইনজীবিদের জেরায় আসামী রাসেল নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় ঝালকাঠি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-০১ আদালতের বিচারক মোঃ গাজী রহমান আসামী রাসেলকে বেকসুর খালাস দেন।
ইতিমধ্যে হতাশা, কস্ট, কলঙ্ক আর দুর্দশায় রাসেল খান’র জীবন থেকে চলে যায় ৩টি বছর। আসামী পে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী অ্যাডভোকেট বনি আমীন বাকলাই।