ঝালকাঠির পৌর কাউন্সিলর হুমাযুন কবির খান কারাগারে

প্রকাশিত: ১২:১৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯ | আপডেট: ১২:১৬:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯

চাঁদা দাবী ও হত্যাচেষ্টা মামলায় ঝালকাঠি পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হুমাযুন কবির খান ও তার ভাই রুবেল খানকে কারাগারে পাঠিয়েছে নআদালত। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে ঝালকাঠি সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রট এএইচএম ইমরানুর রহমান এ আদেশ দেন।
মামলার বিবরণে জানাগেছে, ঝালকাঠি পৌরসভার কিফাইত নগর এলাকার স্থানীয় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম তার জমিতে একটি ঘর নির্মাণের কাজ শুরু করলে তাতে বাধা দিয়ে তার কাছে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন কাউন্সিলর হুমাউন কবির। দাবীকৃত চাঁদার টাকা না দেয়ায় গত ১৩ জুন রাতে ব্যবসায়ী নজরুল ইসলামকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করেন ওই কাউন্সিলর ও তার লোকজন। এ ঘটনায় বাদী হয়ে নজরুল ইসলাম ১৩ জনকে আসামী করে গত ২০ জুন ঝালকাঠির সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি নালিশি অভিযোগ দায়ের করেন। আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে ঝালকাঠি সদর থানার ওসিকে এফআইআর হিসেবে নথিভুক্ত করার নির্দেশ দেন। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) ওই মামলায় হুমায়ুন কবীর সহ অপর ১২ আসামী আদালতে হাজির হয়ে জামিন চাইলে, আদালত হুমায়ুন কবীরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন এবং অপর আসামীদের জামিন মঞ্জুর করেন। বাদী পে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট আক্কাস সিকদার ও বনি আমিন বাকলাই। অপরদিকে আসামি পে ছিলেন অ্যাডভোকেট মোস্তাাফিজুর রহমান মনু ও আনোয়ার হোসেন খোকন মোল­া। এদিকে কাউন্সিলর হুমায়ুন কবিরের ভাই রুবেল খানসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গত ১৫ জুন হত্যাচেষ্টার অভিযোগে আরেকটি মামলা দায়ের করেন পশ্চিম ঝালকাঠি এলাকার জিহাদ বেপারী। এ মামলায় কাউন্সিলরের ভাই রুবেল খানকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়ে অপর ৮ আসামীকে জামিন দেন আদালত।