শাহজাদপুরে নদ-নদী, খাল-বিলে চলছে পোনা মাছ নিধনের উৎসব ॥

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৩:২৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৯ | আপডেট: ৩:৩৯:অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০১৯

এম,এ, জাফর লিটন, সিরাজগঞ্জ :

নদীতে বন্যার পানি প্রবেশের সাথে সাথেই জেলেরা বিভিন্ন খেয়া, ধর্ম, বাদাই জাল দিয়ে মাছ ধরা শুরু করেছে। শাহজাদপুর উপজেলার বিভিন্ন খালÑবিল ও নদীতে সকাল থেকে বিকেল শুরু হয়েছে নিবন্ধনকৃত জেলে ছাড়াও মওসুমী অনিবন্ধিত জেলেদের পোনা মাছ নিধনের মহা উৎসব। পোনা মাছ ধরা নিষেধাজ্ঞা থাকলেও কে শোনে কার কথা। শাহজাদপুর উপজেলার সর্বত্র কাতল, পুঁটি, টেংরা, বাইম, পাবদা, বোয়াল মাছের পোনা বড় বড় ধর্মজাল, বেড়িজাল দিয়ে অবাধে নিধন করা হলেও প্রশাসনের এখন পর্যন্ত কোনো হস্তক্ষেপ লক্ষ করা যায়নি। যার ফলে প্রতিরোধ করা সম্ভব হচ্ছেনা পোনা মাছ ধরার উৎসব।

শাহজাদপুর উপজেলার হাটÑবাজারগুলোতে প্রকাশ্যে পোনা মাছ বিক্রি করা হলেও যেন চোখে পড়েনা প্রশাসনের কারো । তাই পোনা মাছ দেদারসে বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে। চলতি জুলাই মাস থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত ৩ মাস পোনা মাছ ধরা সরকারিভাবে নিষিদ্ধ থাকলেও তা মানছে না কোন জেলেই। এমনকি নিবন্ধনকৃত জেলেরাও রীতিমত জড়িয়ে আছে পোনা মাছ নিধনের সাথে। প্রতি বছর বর্ষা মওসুমে পোনা মাছ নিধনের অপরাধে জেলেদের জাল পুড়িয়ে দেয়া এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা আদায় করা হলেও এখন পর্যন্ত কোনো অভিযান পরিচালনা করা হয়নি। এ ব্যাপারে শাহজাদপুর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত মৎস্য কর্মকর্তা জানান, শিগগিরই পোনা মাছ নিধন রোধে অভিযান পরিচালনা করা হবে। জনবল সঙ্কটের কারণে সময়মত অভিযান পরিচালনা করা সম্ভব হয়না। তবে সাধারণ মানুষ মনে করে এখনই পোনা মাছ নিধন অব্যাহত থাকলে মাস দুয়েক পর বড় মাছের সঙ্কট দেখা দেবে। তাই পোনা মাছ ধরা বন্ধের এখনই উপযুক্ত সময়। দ্রুত এ মাছ ধরা বন্ধে প্রশাসনকে কঠোর ভূমিকা পালন করতে হবে।