হবিগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রী অন্তঃস্বত্তা; প্রেমিকসহ আত্মহত্যার চেষ্টা

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১২:৩৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৭ | আপডেট: ১২:৩৫:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৭
হবিগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রী অন্তঃস্বত্তা; প্রেমিকসহ আত্মহত্যার চেষ্টা

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল গ্রামে প্রবাসির অন্তঃস্বত্তা স্ত্রীসহ তার পরকীয়া প্রেমিক বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। এর আগে ওই প্রবাসির স্ত্রীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করায় তাকে তালাক দেয় তার স্বামী। এ ঘটনায় সর্বত্র তোলপাড় চলছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পইল এলাকার দালান হাটির সুরত আলীর পুত্র প্রবাসি জুয়েল মিয়া বিয়ে করে কুমিল্লা জেলার কান্দিরপাড় এলাকার মৃত আয়াত আলীর কন্যা রাবিয়া আক্তারকে (৩০)। বিয়ের পর তাদের ৩ সন্তানের জন্ম হয়। জীবিকার তাগিদে জুয়েল সৌদি আরব চলে যায়। এ ফাঁকে রাবিয়ার সাথে পার্শ্ববর্তী কাছম আলীর পুত্র তোফাজ্জল মোল্লার পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এ খবর জুয়েলের নিকট পৌঁছলে সে দেশে চলে আসে এবং জানতে পারে তার স্ত্রী অন্তঃস্বত্তা। এতে সে ক্ষিপ্ত হয়ে রাবিয়াকে তালাক দেয়।

এদিকে, রাবিয়া তার প্রেমিক তোফাজ্জলকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। প্রথমে সে বিয়েতে রাজি না হলেও পরবর্তীতে চাপের মুখে পড়ে সে রাবিয়াকে বিয়ে করতে রাজি হয়।

বৃহস্পতিবার ওই গ্রামের জনৈক ব্যাক্তির বাড়িতে বিয়ের আয়োজন করা হয়। বিয়ের সকল প্রস্তুতির শেষ মুহুর্তে তোফাজ্জল বিয়ে করতে অনিহা প্রকাশ করে। এ নিয়ে রাবিয়া ও তোফাজ্জলের মাঝে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে দুইজনই বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ব্যাপারে গৃহবধূর সাবেক স্বামী জুয়েল জানান- রাবেয়া পরকীয়ার আশক্ত হয়ে পড়েছিল। এমনকি তার গর্ভে পরকীয়া প্রেমিকের সন্তানও ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে আমি দেশে এসে তাকে তালাক দেই। পরে রাবেয়া ও তার পরকীয়া প্রেমিকের বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে বলে আমি শুনেছি।

এ ব্যাপারে ৪নং পইল ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ মঈনুল হাসান আরিফ জানান- বিষ খাওয়ার বিষয়টি শুনেছি। তবে কি কারণে তারা বিষ খেয়েছে তা নিশ্চিত না।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ত্রিলোক চাকমা জানান, রাবিয়ার অবস্থা আশংকাজনক। তার অনাগত সন্তান নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। -সিলেটভিউ