যুবলীগ নেতা খুনে জড়াতে পারে উজিরপুর বিএনপির ১১ নেতাকর্মী

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১২:৫৮ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৭ | আপডেট: ১২:৫৮:পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৮, ২০১৭
যুবলীগ নেতা খুনে জড়াতে পারে উজিরপুর বিএনপির ১১ নেতাকর্মী

বরিশালের উজিরপুরে বামরাইল ইউনিয়নের ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক টিটু হাওলাদার হত্যার আলোচিত মামলাটি থানাকে এজাহার হিসাবে গ্রহণ করার আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার বরিশালের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো: গোলাম ফারুক হোসাইন আলোচিত এই মামলাটি উজিরপুর থানার ওসি মো: গোলাম সরোয়ারকে এজাহার হিসাবে গ্রহণের আদেশ দেন।

এই মামলায় বিএনপির ৬ নেতাকে নামধারী ও ৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে।

আসামীরা হলেন- উজিরপুর উপজেলার গড়িয়াগাভা এলাকার মো: আনোয়ার সিকদারের ছেলে যুবদল নেতা মো: জসিম সিকদার, গড়িয়া এলাকার মৃত জয়নাল গোমস্তার ছেলে উজিরপুর থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক মো: মাহবুব আলম গোমস্তা, গড়িয়া গাভা এলাকার মো: নেসার সিকদারের ছেলে যুবদল নেতা মো: লিটন সিকদার, চৌমোহনী গড়িয়াগাভা এলাকার মো: নুরুল হকের ছেলে বিএনপি নেতা মো: জলিল, গড়িয়াগাভা এলাকার মো: তুজাম্বর আলী আকনের ছেলে বিএনপি নেতা মো: সিদ্দিক আকন ও একই এলাকার মো: ইউসুফ হাওলাদারের ছেলে যুবদল কর্মী মো: মাইনুল।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, উজিরপুর উপজেলার ৭নম্বর বামরাইল ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: টিটু হাওলাদার (৩২) কাছে আসামী বিএনপি নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সময় ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসতেছিল এবং টিটুকে তারা জীবননাশের হুমকি দিচ্ছিল। চলতি বছরের ১৪ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটের সময় আসামীরা মোটরসাইকেলে করে টিটু হাওলাদারকে তারা বাড়ি থেকে জোর করে তুলে নিয়ে যায়।

পরে তারা টিটুকে উজিরপুরে গড়িয়াগাভা চৌমোহনী স্টীল ব্রীজের দক্ষিণ পার্শ্বে নিয়ে যায়। পরে আসামীরা টিটু হাওলাদারকে দেশিয় অস্ত্র চাপাতি দিয়ে এলোপাতারিভাবে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় চলতি বছরের ১৬ নভেম্বর নিহত যুবলীগ নেতা টিটু হাওলাদারের পিতা মো: আব্দুল মালেক হাওলাদার বাদী হয়ে ৬ বিএনপি নেতাকর্মীকে নামধারী ও ৫ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে বরিশালের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেন।