ছেলে-মেয়ে কে কাকে পছন্দ করবেন জেনে নিন!

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১২:২৭ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০১৯ | আপডেট: ৯:২৬:অপরাহ্ণ, জুন ১৯, ২০১৯

সবচেয়ে কষ্টসাধ্য কাজগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে মেয়েদের মন বোঝা। কারণ তারা তাদের মনের কথা সহজে প্রকাশ করতে চাঢ না। ঠিক তেমনি পুরুষদের ব্যক্তিত্বের এমন কিছু দিক যা মেয়েরা মুখে অপছন্দের কথা বললেও মনে মনে আসলে সেগুলো ঠিকই পছন্দ করে। সম্প্রতি কয়েকজন মেয়েকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, তাদের কোন ধরনের ছেলে পছন্দ? তেমনি আবার ছেলেদের খেত্রেও তাই।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আরেকজন বলেন, যে মেয়ে শান্তশিষ্ট, তার পছন্দ হাসিমুখ ছেলে।

যে তাকে কথায় কথায় হাসাবে। দুরন্ত স্বভাবের মেয়েরা প্রেম করে দুরন্ত ছেলের সঙ্গেই। তবে অতি দুরন্ত মেয়ে কিন্তু শেষ পর্যন্ত বেছে নেয় একজন শান্ত ছেলেকেই। আরেকজন জানান, ‘হটি ও নটি’ টাইপের মেয়েদের সব ধরনের ছেলেই পছন্দ! এ ধরনের মেয়েরা কিন্তু একসঙ্গে একাধিক প্রেমিককে বশ করে রাখার ক্ষমতা রাখে। তবে এ ধরনের মেয়ে যাকে সত্যি সত্যি ভালোবাসে, তাকে সত্যিই মন থেকে চায়।প্রেম এর ছবির ফলাফল

মেয়েরা কেমন ছেলে চায়:
ভালোবাসা দুটি মনের সমষ্ঠি। ছেলেরা সাধারণত বাংলাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে এক কথায় নম্র-ভদ্র মেয়ে খুজে!। আজ নাহয় জেনে নেই মেয়েরা কেমন ধরণের ছেলে পছন্দ করে। তাহলে আসুন আজ জেনে নিই, মেয়েরা কি ধরণের পুরুষ পছন্দ করে।

মেয়েরা কেমন ছেলে পছন্দ করে ? সেক্সসুয়াল না টাকাওয়ালা ছেলে , জেনে নিন !!

কথায় বলে মেয়েদের ‘মন বোঝা দায়!’ অনেকের তো বুক ফাটে তবু মুখ ফোটে না। তাই মনে যাই থাকুক মুখে বলে অন্য কথা। এ সবের মধ্যেও আসল পছন্দটা কী? কলকাতা ও আশপাশের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে যা জানা গেল তা কিন্তু অবাক করে দেওয়ার মতো। তাঁদের বক্তব্য থেকে যেটা উঠে এল তাতে দেখা যাচ্ছে, ছেলেরা যতই কায়দার হেয়ার স্টাইল দেখাক, ঝক্কাস বাইক হাঁকাক, সিক্স প্যাকের সেক্সি বডি বানাক আসলে মেয়েরা নিদেন পক্ষে বাঙালি মেয়েরা পছন্দ করে একজন মজাদার ছেলেকে। সেটা বন্ধু হিসেবে, বয়ফ্রেন্ড হিসেবে, স্বামী হিসেবে কিংবা ডেটিং পার্টনার হিসেবে। মজার সঙ্গে বাকি দু’টো পেয়ে গেলে তো সোনায় সোহাগা। ভাল চাকরি বা ব্যবসা তো চাই, ভাল স্বাস্থ্যও চাই কিন্তু সবার আগে তাঁকে মজাদার হতে হবে। কারণ, জীবনে মজা না থাকলে অর্থ কিংবা সেক্স সম্পূর্ণ আনন্দ দিতে পারে না। কলেজ ক্যান্টিনে যে ছেলেটা টেবিল বাজিয়ে গান করে তার সেক্স নিয়ে কেউ মাথা ঘামায় না। কিন্তু তার প্রেমে পড়তে মন চায়। যে ছেলেটা দিনরাত জোকস শোনায় সে সবার আগে সকলের মধ্যমণি হয়ে ওঠে।প্রেম এর ছবির ফলাফল

যেসব কারণে বেশি বয়সী মেয়েদের পছন্দ করে ছেলেরা!
এখন যেকোনো বয়সের পুরুষ যেকোনো বয়সের নারীর সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করেন। আমাদের সমাজে বহু বছর আগে নিয়ম ছিল যে, সম্পর্কে নারীকে সব সময় পুরুষের থেকে কম বয়সী হতে হবে। কিন্তু এখন সময় ও সমাজ বদলেছে। এর সঙ্গে সঙ্গে আমাদের মানসিকতাও বদলেছে। তাই এখন অনেক সময়েই দেখা যায় কোনো কোনো সম্পর্কে নারীরা পুরুষের থেকে বেশি বয়সের হয়।
ছেলেদের নিজের তুলনায় বেশি বয়সের মেয়েদের প্রতি আর্কষণ বা সম্পর্ক তৈরির কারণ হিসেবে জানা যায়, ‘কথোপকথন’। এই প্রসঙ্গে অনেক পুরুষই স্বীকার করছেন যে, বেশি বয়সের মেয়েরা যেহেতু জীবনটাকে বেশিদিন দেখেছেন, তাই তাদের জীবন সম্পর্কে অনেক অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাই তাদের কথার্বাতাও অনেক বেশি যুক্তিপূর্ণ ও পরিপক্ক হয়। মূলত এ কারণেই ছেলেরা বেশি বয়সের মেয়েদের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করতে আগ্রহী হন।যারা জীবন নিয়ে সচেতন থাকবে এমন নারীর সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করার জন্যই বয়সে বড় মেয়েদের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করে ছেলেরা। পুরুষরা আত্মবিশ্বাসী মেয়ে পছন্দ করেন। যাদের নিজেদের বক্তব্য পেশ করতে কোনো রকম দ্বিধাবোধ হবে না, এমন মেয়ে পছন্দ হওয়ার কারণেই তারা বেশি বয়সী মেয়েদের প্রতি আকৃষ্ট হন। সঙ্গীকে কোনো পাবলিক প্লেসে সঙ্গে করে নিয়ে যেতে গেলে এই বিষয়গুলো ছেলেদের ভাবায়। তাই তারা সেই সমস্ত জায়গায় বেশি বয়সের মেয়েদের নিয়ে যেতেই পছন্দ করেন।সম্পর্কিত ছবি

কিভাবে বুঝবেন একজন মেয়ে আপনাকে পছন্দ করে ??

ছেলেরাই শুধু মেয়েদের প্রেমে পড়ে এমন ধারণা অনেকেরই আছে। কিন্তু এই ধারণাটি মোটেও ঠিক নয়। অনেক মেয়ে আছে যারা মনে মনে কোনো না কোনো ছেলেকে পছন্দ করে। খুব সহজেই কিছু লক্ষণ দেখে আপনি বুঝতে পারবেন যে সেই মানুষটি আপনার প্রতি মুগ্ধ হচ্ছে। মেয়েদের হাসিতে সাধারণত অনেক ধরনের কথা লুকিয়ে থাকে। এ কারণে হঠাৎ করে দেখেন যে সেই মেয়েটি প্রায়ই আপনাকে দেখে মিষ্টি করে হাসি দেয় তাহলে ভাববেন সে আপনাকে পছন্দ করে। যে মেয়েটি আপনাকে পছন্দ করে তার কাছে আপনার চেয়ে তেমন কোনো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নেই। আপনি যখন কথা বলতে আসেন তখন আপনার কথাকে বেশ মূল্যায়ন দিয়েই শুনছেন। তাহলে ভাববেন বিষয়টি সত্য, সে আপনার প্রতিই আকর্ষিত হচ্ছে। যখন কোন মেয়ে রহস্য করে বলবে যে, আপনাকে কেউ পছন্দ করে, কিন্তু আপনি তা জানেন না। এমন ধরনের কথা বললে আপনি ধরে নিতে পারেন যে মেয়েটি আপনার প্রতি আকর্ষিত হচ্ছে।

ভালোলাগার মানুষটিকে অকারণে ফোন দিতে ইচ্ছা করে। আর সে জন্যই যদি দেখেন আপনার পছন্দের মেয়েটি যদি আপনাকে অকারণেই ফোন দিয়ে থাকে তাহলে বুঝবেন মেয়েটি আপনার প্রতিই আকর্ষিত হচ্ছে। এটা মেয়েদের একটি স্বাভাবিক বৈশিষ্ট্য যে পছন্দের মানুষটি যদি অন্য কোনো মেয়েদের দিকে তাকায় বা কথা বলে তাহলে তার প্রতি চরম ঈর্ষান্বিত হয়ে ওঠে। এমন ঘটনাটি যদি আপনার পছন্দের মেয়েটিও করে থাকে তাহলে ভাববেন সে সত্যিই আপনাকে ভালোবাসে।সম্পর্কিত ছবি

কিভাবে প্রেম করবেন, কেন করবেন আর কেন করবেন না!
কয়েকযুগ আগের প্রেম বলতে চিঠি পত্র কিংবা সিনেমায় দেখা কালজয়ী প্রেম বেঁদের মেয়ে জ্যোৎস্না এসব। আরো কিছু আছে যা এই মুহুর্তে মনে পড়ছে না।তবে “কিভাবে প্রেম করবেন” তা নিয়ে আগ্রহ জন্মাতে পারে যে কোন সময়েই। সআমি শুধু বলতে পারি স্বাভাবিক ভাবে একজন তরুণ একজন তরুণীর সাথে কিভাবে প্রেম করবেন এই বিষয়ে। প্রেম এমন এক বিশাল ব্যপার যেটা টেকনোলজি দিয়ে করে ফেলা যায় না। কোন দিন কোন একটি টেকনিক কাজ করলেও অন্যদিন তা নাও করতে পারে। তবে ভাল প্ল্যান আর পরিশ্রম করলে এই বিষয়ে কিছুটা সহজ হয়।সম্পর্কিত ছবি

প্রেম কি করতেই হবে?
আপনি প্রেম কেন করবেন? প্রেম না করে আপনার চলে কি না সেটা দেখতে হবে। যদি ব্যক্তি জীবনে প্রচণ্ড অস্থির লাগে তবে প্রেম করাই ভাল, কিন্তু দেখবেন যদি আপনি ভাল কিছু কাজে সময় ব্যয় করতে চান, তবে ওসবে গা না ভাসালেও চলবে। তবে প্রেম করে লাভ যেমন ক্ষতিও তেমনি। বুঝে শুনে প্রেম করুন। ক্ষতির দিকটা ভাবুন।

ভেবে বের করুন আপনার ভাল লাগে কাকে?
কাকে ভাল লাগে? সে কে? যে কোন মানুষের আশে পাশে অনেক মানুষ থাকে। আত্মীয় বন্ধু বান্ধব এছাড়াও কলেজে জুনিয়র সিনিয়র কত মানুষ। এর মধ্যে কে একজন অবশ্যই আছে যাকে অন্য সবার কাছ থেকে ভিন্ন মনে হয়। খুঁজে বের করতে হবে কে সে? যদি এমন হয় যে যাকে ভাল লাগছে সে আরো একজনের সাথে প্রেম করেই যাচ্ছে তাহলে এখানেই শেষ করে ফেলা উচিত।সম্পর্কিত ছবি

পছন্দের কারন বের করুন-
যার সাথে প্রেম করবেন বলে ঠিক করে ফেলেছেন তাকে কেন আপনি পছন্দ করলেন তার কারন বের করুন। সে কেন আপনাকে এত আকর্ষন করে? শারীরিক কাঠামো কিংবা সৌন্দর্য? যদি শুধু তাই হয় তবে আরেকবার ভাবুন এই প্রেমের বাস্তবিকতা পুর্ন হবে কিনা। সে কি জীবনে খাপ খেয়ে যাবে না কি আরো বেশি যন্ত্রণাদায়ক হবে।

জিএমনিউজ/জিএমআর/১৮জুন