প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছ সম্বলিত ব্যানার চুরির প্রতিবাদে বিক্ষোভমিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৬:৫২ অপরাহ্ণ, জুন ১১, ২০১৯ | আপডেট: ৭:৪৭:অপরাহ্ণ, জুন ১১, ২০১৯

ওমর ফারুকঃ

গত ৯ জুন রাতের অন্ধকারে চট্টগ্রাম মহানগরীর ১৩ নং পাহাড়তলী ওয়ার্ড কাউন্সিল কার্যালয়ের সামনে থেকে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখহাসিনার সর্বস্তরের জনগণকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা সম্বলিত ব্যানার চুরিরঘটনা ঘটে। ঘটনাটি স্থানীয়আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ওপ্রতিক্রিয়ার সৃষ্টিকরে। এই ঘটনার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামীলীগের নির্দেশে গত ১০ জুনবিকাল ৫.০০ টায় ১৩ নং পাহাড়তলী ওয়ার্ড কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ মিছিল ওপ্রতিবাদ সভাঅনুষ্ঠিতহয়।

১৩ নং পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ প্রবীণসদস্য সিরাজ উদ্দোলার সভাপতিত্বে ও একই ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক কায়ছার মালিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠি তপ্রতিবাদ সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেনওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেনশাহ,সম্পাদক মন্ডলী সদস্য মোহাম্মদ নুর হোসেন, হুমায়ন কবির, জাফর উল্লাহম জুমদার, সদস্য কলন্দর খাঁন, মোঃইসহাক, আবদুল আউয়াল, মোঃ নাসির, মহা নগর যুবলীগের নেতা আব ুসুফিয়ান, মোঃ ফার”ক, ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা মোঃশাহীন, মিজান,স্বপন,স্বেচ্ছা সেবক লীগ নেতা জনি,বাদশা,কামর”লহাসানইদু,ওয়ার্ড যুব মহিলা লীগের আহ্বায়ক জাহানারা বেগম ও মনি।

কায়ছার মালিক তার বক্তব্যে বলেন, পাহাড়তলী বঙ্গবন্ধুর আদর্শেরঘাটি। সংগঠনের ভিতরে অনুপ্রবেশ কারী ঘাপটি মেরে থাকা জামাত বিএনপির প্রেতাত্মারাই এই জঘন্যতম ঘটনা ঘটিয়েছে। দলে অনু প্রবেশকারীরা কখনো বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হতে পারেনা। তিনি অবিলম্বে এই দুষ্কৃতি কারীদেরকে গ্রেফতার করে বিচারের মুখো মুখি করার জোর দাবি জানান। সভা শেষে সর্বস্তরের নেতা কর্মীদের অংশ গ্রহণে একটি বিক্ষোভ মিছিল বাহিরহয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে।