বরিশালে নগ্ন ছবিধারণ করে ধর্ষণ: ধর্ষক আটক

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৫:৫৯ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৫৯:অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০১৯

বরিশাল জেলার উজিরপুর উপজেলার বামরাইল ইউনিয়নের দক্ষিণ মোড়াকাঠি গ্রামে গোসলের সময় গৃহবধুর নগ্ন ভিডিও ধারন করে সেই ভিডিও দেখিয়ে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষনের ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ভুক্তভোগি ওই গৃহবধু থানায় অভিযোগ দেওয়ার পর অভিযান চালিয়ে ধর্ষক মিলন রাঢ়ীকে আটক করেছে পুলিশ।

ধর্ষক মিলন একই এলাকার ফারুক রাঢ়ীর পুত্র। মামলা ও ভুক্তভোগি গৃহবধু জানান, দেড়বছর যাবত দক্ষিণ মোড়াকাঠী গ্রামের হারুন হাওলাদারের বাড়ীতে দিনমজুর স্বামীর সাথে ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছেন। গত ছয়মাস পূর্বে দক্ষিণ মোড়াকাঠি এলাকার ফারুক রাঢ়ীর পুত্র একই বাড়ির ভাড়াটিয়া মিলন রাঢ়ী গোপনে মোবাইলে ফোনে তার নগ্ন ছবি ও ভিডিও ধারণ করে।

এরপর ওই ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে একাধিকবার তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। তিনি আরও জানান, কয়েকদিন পূর্বে ওই ছবি ও ভিডিও তার স্বামীর কাছে দেখানোর কথা বলে ভয়ভীতি প্রদর্শন পূনরায় ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে মিলন তার স্বামীকে নগ্ন ভিডিও দেখায়।

এনিয়ে তাদের পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। পরবর্তীতে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে গত ১৭ মে রাতে স্থানীয়র প্রভাবশালীরা দক্ষিণ মোড়াকাঠি ধর্ষিতা গৃহবধুর ভাড়া বাসায় বিষয়টি ধামাচাঁপা দেওয়ার জন্য ওই গৃহবধু ও তার স্বামীকে ডেকে দশ হাজার টাকা দিয়ে থানা পুলিশসহ কাউকে না জানানোর জন্য হুমকি প্রদান করে।

ধর্ষিতা ওই গৃহবধুর স্বামী দিনমজুর শহিদুল ইসলাম জানান, স্থানীয় প্রভাবশালীদের কাছে ওই দশ হাজার টাকা ফেরত দেওয়ার পর তাদেরকে ভাড়াটিয়া বাসা থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়। উজিরপুর মডেল থানার ওসি শিশির কুমার পাল জানান, মঙ্গলবার রাতে ভিকটিমের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়ার পরপরই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত মিলন রাঢ়ীকে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।