ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট, ইবি উপ-উপাচার্যের থানায় জিডি

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১২:২৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০১৯ | আপডেট: ১২:২৭:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০১৯

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে নিজের নামে নামে মিথ্যা কুৎসা ছড়ানোর অভিযোগ করেছেন । এ অভিযোগে তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

শনিবার (৬ এপ্রিল) তিনি এ জিডি করেছেন বলে জানান ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রতন শেখ। অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, ‘মুজিবুর রহমান’ নামের ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে তার নামে মিথ্যা ও অপ্রীতিকর পোস্ট দেওয়া হচ্ছে।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রতন শেখ বলেন, অজ্ঞাতনামা জিডি করা হয়েছে, এ বিষয়ে সিআইডি অনুসন্ধান করে তথ্য সরবরাহ করলে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মুজিবুর রহমান নামের ফেসবুক আইডিতে যা পোস্ট করা হয়েছিল তা তুলে ধরা হলো।

”ইবি প্রোভিসির বাসায় চলছে রমরমা ব্যবসা!

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোভিসি শাহিনুর রহমান বসবাস করেন ক্যাম্পাসে অথচ হাফ ডজনের বেশি নিরাপত্তা প্রহরী কড়া নিরাপত্তায় কে থাকছে কুষ্টিয়ার বাসায়? এ নিয়ে অনেকদিন ধরে চলছে আলোচনা। বেড়িয়ে এসেছে নানা অজানা রহস্য। বাসায় পাহারাদার সাবেক এক আনসান বললেন’ আমারা সবই দেখি, শুনি, বুঝি কিন্তু মুখে বলা যাবেনা। কড়া নির্দেশ। অবসরে এসে হাফ ছেড়ে বেঁচেছি বাবা’।

অনুসন্ধানে জানা যায়, তাঁর বাসায় প্রায় অচেনা নারী পুরুষের আনাগোনা। রাত কাটান চলে যান। মাঝেমাঝে প্রোভিসি নিজে এসে মধ্য রাতে চলে যান। ভিসি বড় বড় কথা বলেন! জবাব দিবেন, কোন যুক্তিতে ক্যাম্পাসে থাকা প্রোভিসির কুষ্টিয়ার বাসায় বছরের পর বছর নিরাপত্তার সুযোগে যা হচ্ছে তার দায় আপনি এড়াবেন কি করে?

কোন যুক্তিতে এ সুবিধা পাচ্ছেন? ক্যাম্পাসের কাহিনী খোঁজ রাখেন? জানি আপনি নিরব। তাঁর অর্থের উৎস নিয়ে রয়েছে নানা তথ্য। মুখোশের আড়ালে কি করেননা তিনি। ১১৭-১০১-১১৭৪০৮ নাম্বার হিসাবে পাওয়া গেল অবৈধ অর্থ উৎসের খণ্ডাংশ। লিপিকে ধর্ষন ও হত্যা থেকে হামিক সরকার পর্যন্ত ডকুমেন্টারী তার সকল কর্মকাণ্ড ধারাবাহিকভাবে আসছে।”

এছাড়া তার মেয়ের এসএসসি ও এইচএসসিতে ফলাফল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স না পাওয়া, বুয়েটে আবেদনের সুযোগ না পেয়েও অসত্য তথ্য ফলাও করে প্রচার করা ও মিষ্টি খাওয়ানোকে চ্যালেন্স করে ঐ আইডিতে স্টাটাস দেয়। এই আইডিটি এখন ডিএক্টিভ আছে।