ঝালকাঠিতে প্রার্থীদের নিয়ে জেলা প্রশাসনের মতবিনিময় সভা

প্রকাশিত: ৫:৩৪ অপরাহ্ণ, মার্চ ১১, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৩৪:অপরাহ্ণ, মার্চ ১১, ২০১৯

৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৩য় ধাপে অনুষ্ঠেয় ঝালকাঠি জেলার ৪ উপজেলার চেয়ারম্যান, ভাইসচেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইসচেয়ারম্যান পদের প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীদের নিয়ে মতবিনিময় সভার আয়োজন করেছে জেলা প্রশাসন। মতবিনিময়কালে প্রার্থীরা তাদের বক্তব্যে অভিযোগ – পাল্টা অভিযোগে নানা প্রসঙ্গ তুলে ধরেন। সর্বোপরি প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা এবং ভোটদানের সুষ্ঠ পরিবেশ ও সবার সমান অধিকার নিশ্চিত করার দাবি জানান। প্রত্যেক প্রার্থীই নির্বাচনটি অবাধ, সুষ্ঠ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন উপহার দিতে জেলা প্রশাসকের কাছে দাবি জানান।
এর প্রেক্ষিতে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক মোঃ হামিদুল হক তার বক্তৃতায় বলেন,‘ভোটাররা নির্বিঘেœ ভোট কেন্দ্রে যাবে এবং স্বাচ্ছন্দে ভোট দিতে পারবে। ভোট কেন্দ্রে এবং কেন্দ্রের বাইরে যাতে কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর থাকবে। নির্বাচনকালীন সময়ে আইন শৃঙ্খলার যাতে কোনরকম অবনতি না ঘটে এজন্য সার্বক্ষণিক ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের সাথে পুলিশ একটি টিম সহায়তার জন্য থাকবে। কেউ উচ্ছৃঙ্খল আচরণ করলে বা নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ সোমবার বেলা ১১ টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সভাকক্ষে এ মতবিনিময় সভা শুরু হয়ে দুপুর ২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার মোঃ জোবায়েদুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ শহিদুল ইসলাম। পৃথক দুটি পর্বে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার (সদর-নলছিটি) এসএম ফরিদ উদ্দিন এবং জেলা নির্বাচন অফিসার ও নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার (রাজাপুর-কাঠালিয়া) মোঃ সোহেল সামাদ।
এ সময় সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আ’লীগের প্রার্থী মোঃ আরিফুর রহমান খান, স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) সৈয়দ রাজ্জাক আলী সেলিম, ইঞ্জিনিয়ার মোস্তাফিজুর রহমান, রাজাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আ’লীগের প্রার্থী মনিরউজ্জামান, মিলন মাহমুদ বাচ্চু, কাঠালিয়া উপজেলা আ’লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী এমাদুল হক মনির, তরুন সিকদারসহ জেলার ৪ উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস প্রার্থী, পুলিশ বিভাগ ও উপজেলা নির্বাচন কমৃকর্তাবৃন্দ উপস্থিত উপস্থিত ছিলেন।
কাঠালিয়ায় আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা) এমাদুল হক মনির অভিযোগ করে বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ আহŸায়ক (বিদ্রোহী প্রার্থী) গোলাম কিবরিয়া সিকদার দলবল নিয়ে শুক্রবার নৌকার কর্মী সমর্থকদের উপর হামলা করে। এতে বেশ কয়েকজন নৌকার কর্মী আহত হন।ঝালকাঠি সদর উপজেলার স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মোস্তাফিজুর রহমান সভায় জানান, আরিফ খানের নেতৃত্বে শতাধিক লোকজন নিয়ে আমার মটর সাইকেল প্রতীকের জনসংযোগরত নেতা কর্মীদের উপর অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়, তাতে ৪ জন রক্তাক্ত জখম হয়, তাদের চিকিৎসার জন্য বরিশাল হাসপাতাল পাঠালে ১ জনের অবস্থা মারাত্মক হওয়ায় চিকিৎসার জন্য ঢাকা স্থানান্তর করা হয়েছে। অপরদিকে, খান আরিফুর রহমান মোস্তাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধেও প্রভাব খাটানোর অভিযোগ তুলেন। মতবিনিময় সভায় কিবরিয়া সিকদার অনুপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময় সভায় উপস্থিত না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশনকে বিষয়টি অবহিত করবেন বলে জানান জেলা প্রশাসক।