খালেদা বাংলাদেশি চিকিৎসকদের ওপর আস্থাশীল

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৩:০২ অপরাহ্ণ, মার্চ ১০, ২০১৯ | আপডেট: ৩:০২:অপরাহ্ণ, মার্চ ১০, ২০১৯

কারাগারে অবস্থানরত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশি চিকিৎসা ব্যবস্থা ও চিকিৎসকদের ওপর আস্থাশীল বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপিসমর্থক চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) নেতারা।

আজ রোববার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালযয়ে (বিএসএমএমইউ) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তারা এ মন্তব্য করেন।

ড্যাব নেতা ডা. মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘খালেদা জিয়া বাংলাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা ও চিকিৎসকদের ওপর আস্থাশীল। উনি তাদের ওপর আস্থা রেখেই দেশে চিকিৎসা নিতে চাচ্ছেন। তবে তার চাওয়া ইউনাইটেড হাসপাতালে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও দেশবরেণ্য চিকিৎসকদের দ্বারা একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করে যাতে তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়।’

কারাগারে খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা হয়নি দাবি করে আহ্বায়ক অধ্যাপক ফরহাদ হালিম ডোনার বলেন, ‘তিনি দাঁড়াতে পারছেন না। হুইলচেয়ারেও পা তুলতে পারছেন না। বেশ কিছুদিন আগে তার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা কারাগারে যান। বোর্ডের সদস্য ডা. এফ এম সিদ্দিকী তাকে ইউনাইটেডে ভর্তি করে ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের দ্বারা চিকিৎসার পরামর্শ দেন। একই দাবি খালেদারও।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই দাবি এত বড় কিছু না বলে আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি। দেশের অনেকে প্যারোলে মুক্তি নিয়ে বিদেশে চিকিৎসা নিতে গিয়েছেন। খালেদা জিয়া বিদেশে যাওয়া তো দূরের কথা দেশেই নিজের ইচ্ছায় চিকিৎসা পাচ্ছেন না।’

আজ কেন আসেননি খালেদা? সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ড্যাবের এই নেতা বলেন, ‘আজকে না আসার কারণ আমার জানা নেই। এর আগে তাকে সর্বশেষ যখন বিএসএমএমইউতে ভর্তি করা হয়েছিল, তখন চিকিৎসা শেষ না করে জোর করে তাকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।’

এর আগে সকাল থেকেই ড্যাবের নেতা ও বিএনপির নারী নেত্রীরা খালেদার বিএসএমএমইউতে ভর্তির সংবাদে হাসপাতালের বাইরে অবস্থান নেন। শেষ পর্যন্ত খালেদা জিয়া আসতে অনীহা জানালে তারা সংবাদ সম্মেলন করে ফিরে যান।