নতুন ইতিহাসের পথে সিডনির বর্ষসেরা বাংলাদেশি নারী

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৭:৫৩ অপরাহ্ণ, মার্চ ৩, ২০১৯ | আপডেট: ৭:৫৩:অপরাহ্ণ, মার্চ ৩, ২০১৯

আসন্ন রাজ্য সরকার নির্বাচনে অস্ট্রেলিয়ায় নিউ সাউথ ওয়েলস থেকে লেবার পার্টির মনোনয়ন পেয়েছেন সাবরিন ফারুকী ঊস্রী। প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত অস্ট্রেলিয়ান হিসেবে দেশটির রাজ্য সরকার নির্বাচনে উচ্চকক্ষ থেকে প্রার্থী হওয়ার গৌরব অর্জন করলেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার লেবার পার্টি থেকে সাবরিনের প্রার্থী হওয়ার খবর জানাজানি হলে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত বাংলাদেশিদের মধ্যে উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে তাকে শুভেচ্ছা জানান।

অস্ট্রেলিয়ার নিউজ পোর্টাল অনুযায়ী, আগামী ২৩ মার্চ নিউ সাউথ ওয়েলস (এনএসডব্লিউ) আইন পরিষদের একটি আসনের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন তিনি।

বাংলাদেশে জন্মগ্রহণকারী ও বেড়ে ওঠা সাবরিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন। ২০০৪ সালে আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী হিসেবে তিনি অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে যান। তিনি ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলস থেকে স্নাতকোত্তর এবং ইউনিভার্সিটি অব সিডনি থেকে পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন।

সিডনি ইউনিভার্সিটি থেকে ‘সেরা গবেষণা শিক্ষার্থী পুরস্কার’ অর্জন করেন তিনি। গবেষণা কাজ অংশ হিসেবে তিনি বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য বিভিন্ন বিষয় এবং সমাধান তুলে ধরেন।

অস্ট্রেলিয়ার সরকারি সেবা যোগদান করার আগে সাবরিন সিডনি ইউনিভার্সিটিকে শিক্ষাবিদ হিসেবে কাজ করেন। তিনি অস্ট্রেলিয়ার ব্যুরো অব স্ট্যাটিস্টিক এন্ড ফেয়ার ওয়ার্ক কমিশনে কাজ করেন। শ্রমিক কর্মী হিসেবে তিনি শরণার্থীদের জন্য একটি স্পষ্ট নীতিমালার পক্ষে পরামর্শ দেন।

সাবরিন বিশ্বাস করেন, শরণার্থী একটি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় ও বৈশ্বিক সমস্যা। সামাজিক পরিবর্তনের জন্য সাবরিন স্বেচ্ছায় নারীর উন্নয়নে, ক্ষমতায়ন, নির্যাতন প্রতিরোধ ও সচেতনতার ওপর কাজ করেন।