মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থী কে থুথু চেটে খেতে বাধ্য করলেন শিক্ষক

নাজমুল হক নাজমুল হক

ব্যাবস্থাপনা সম্পাদক

প্রকাশিত: ৯:৩২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯ | আপডেট: ৯:৩২:অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯

নাজমুল হক, মাদারীপুর 01772327799

মাদারীপুর শহরের পুরান বাজার এলাকায় মুক্তনগর মদীনাতুল উলুম মাদ্রাসার এক ছাত্র (৯) কে থুথু চেটে খাওয়ানোর অভিযোগ উঠেছে হাফেজ মেজবাহ নামে এক মাদ্রাসার শিক্ষকের বিরুদ্ধে। তিনি একই মাদ্রসার শিক্ষক। এই ঘটনা সোমবার সকালে জানাজানি হলে অভিবাকদের মাঝে ব্যপক উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে।

 

সংশ্লিষ্ঠ একাধিক সূত্রে জানা গেছে, শ্রেণি কক্ষে পড়ানোর সময় কথা বলায় ক্ষিপ্ত হয়ে মো. ইউসুফ নামে এক ছাত্রকে বাথরুমে থুথু ফেলে সেই থুথু চেটে খেতে বাধ্য করে। পরে ওই ছাত্রের অভিবাবকসহ অন্য অভিবাবকদের মাঝে বিষয়টি জানাজানি হলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। এসময় পরিস্থিত বেগতি দেখে সটকে পরে ওই শিক্ষক। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। ওই মাদ্রাসা ছাত্র জানায়, ‘আমি কথা বলার কারনে হুজুর আমাকে থুথু চেটে খেতে বাধ্য করেছে।’

 

মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা মাহমুদ উল্লাহ বলেন, ঘটনাটি জানা পরে আমার ওই শিক্ষককে ভৎসনা করেছি। তার বিচার করা হয়েছে। ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক।

 

মাদারীপুর সদর থানার ওসি কামরুল হাসান বলেন, ঘটনা শুনে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিন্থিতি এখন স্বাভাবিক।