শীতকালে নিজেকে সুন্দর ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখতে জেনে নিন কিছু টিপস

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:৫৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৫৬:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০১৯

নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার করুন। শীতকালে ঠান্ডার কারণে অনেকেই রাতে ঘুমানোর আগে ত্বক পরিষ্কার করেন না। এটা ত্বকের জন্য খুবই খারাপ একটি বিষয়।এতে ব্রণ হবার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়। তাই অলিভ ওয়েল মেখে গরম পানি দিয়ে পরিষ্কার করতে পারেন ত্বক।
-ত্বক পরিষ্কারের পর ময়েশ্চারাইজিংয়ের জন্য ভালো মানের ক্রিম ব্যবহার করুন। হাত ও পায়ের জন্য ব্যবহার করুন গ্লিসারিন বা লোশন।

-শীতকালে চুল হয়ে ওঠে রুক্ষ ও ভঙ্গুর। ঘুমানোর আগে নারিকেল তেল বা অলিভ অয়েল উষ্ণ গরম করে চুলে মাসাজ করুন। পরদিন শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।এতে চুলের আগা ফাটার পরিমাণও কমে যাবে। আর ঘুমানোর আগে অবশ্যই চুল ভালো করে আঁচড়ান এবং চুল বেঁধে ঘুমান। এতে চুল ঘষা কম খাবে এবং চুল কম পড়বে।

-শীতের দিনে পায়ে ধুলোময়লার আক্রমণ বেশি হয়। তাই শীতকালে পায়ের বিশেষ যতœ প্রয়োজন। প্রতি রাতে পা গরম পানি দিয়ে ভালো করে পরিষ্কার করুন। এরপর লোশন বা ময়েশ্চারাইজার জাতীয় কিছু ব্যবহার করুন। এতে পায়ের রুক্ষতা যেমন দূর হবে, তেমনি পায়ের গোড়ালিও ফাটবে না।

-ত্বকের রং উজ্জ্বল করার জন্য এক দিন পরপর ব্যবহার করুন তাজা টমেটো। একটি টমেটোর পাল্প পুরোটা বের করে নিন, এর সঙ্গে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস ও সামান্য মুলতানি মিশিয়ে ব্যবহার করুন মুখে-গলায়-হাতে। শীতজুড়েই ত্বক থাকবে ঝলমলে।
-এই শীতে ত্বক নরম ও ফরসা করতে আরেকটি চমৎকার উপাদান হতে পারে পাকা পেঁপে। পাকা পেঁপে চটকে নিয়ে তার সঙ্গে মধু, সামান্য কাঁচা হলুদ ও কাঁচা দুধ মিশিয়ে মুখে-গলায় লাগান। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে এক দিন এটা করতে পারেন, ত্বক হয়ে উঠবে ঝলমলে।

-রোদে বের হওয়ার আগে অবশ্যই ছাতা ব্যবহার করুন। শীতের ত্বক যতই মিষ্টি লাগুক অনুভব করতে, আসলে কিন্তু গ্রীষ্মের রোদের মতোই ক্ষতিকর। একই সঙ্গে খুব বেশি গরম পানি দিয়েও গোসল করবেন না। এতে আপনার ত্বকের সৌন্দর্য ও প্রাকৃতিক রং, দুটোই হারাবে।

-প্রচুর পানি ও শাকসবজি খান। পানি খাওয়ার পরিমাণ কমিয়ে দিলে ত্বক হারায় স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা। আর সহজলভ্য শাকসবজি ও ফল আপনাকে সুস্থ ও সুন্দর রাখবে।