এক ছেলেকে হত্যা, জিম্মি আরেক ছেলেকে জীবিত উদ্ধার

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৩:৫৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ | আপডেট: ৩:৫৫:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৬, ২০১৮

নাজমুল হক, স্টাফ রিপোর্টার। 01772327799

তিন বছরের শিশুকে হত্যা করে আরেক শিশুকে জিম্মি করে রাখা বাবা নুরুজ্জামান কাজলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার বেলা আনুমানিক ২টায় রাজধানীর বাংলামোটরের লিংক রোডের খোদেজা খাতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উল্টো দিকের ১৬ নম্বর বাড়ি থেকে ওই শিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর পিতা নুরুজ্জামান কাজলকে আটক করে শাহবাগ থানার দিকে নিয়ে যাওয়া হয়।

বুধবার সকাল থেকেই বাংলামোটরের ওই বাসায় এক বাবা তাঁর এক শিশুসন্তানকে হত্যা ও অন্যজনকে ‘জিম্মি’ করে রেখেছে জানতে পেরে বাসাটি ঘিরে ফেলে র‍্যাব, পুলিশ, আনসার ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যেরা।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বলেন, “ওই বাসায় একটি শিশু মারা গেছে বলে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। শিশুটির বয়স আড়াই থেকে তিন বছর।’ তিনি জানান, শিশুর বাবা এর আগে মাদক গ্রহণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছিল। তাকে জেলেও পাঠানো হয়।”

মাদক আসক্ত কাজলের ওপর পরিবারের বাকি সদস্যরা বিরক্ত ছিলেন। স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে ওই বাসার দোতলায় থাকতেন কাজল। পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, তাঁর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে মাস খানেক আগে তার স্ত্রী বাড়ি ছেড়ে চলে গেছে।

স্থানীয় বাসিন্দা আকিল জামান বলেন, কয়েক মাস আগে স্ত্রীকেও মারধর করেন কাজল। প্রতিবেশীরা এসে তার স্ত্রীকে উদ্ধার করেন। নির্যাতন সইতে না পেরে স্ত্রী চলে গেছেন। বাচ্চা দুটো বাবার সঙ্গে ছিল।

গ্রেফতার নুরুজ্জামানের ভাই নুরুল হুদা উজ্জ্বল অভিযোগ করেন, তার ভাই কাজল দুই ছেলের মধ্যে এক ছেলেকে হত্যা করেছে। তার হাতে রামদা ছিল।