শীতে ত্বকের যত্ন যেভাবে নিবেন

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ৫:১৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২২, ২০১৮ | আপডেট: ৫:১৩:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২২, ২০১৮

শীতকাল তো প্রায় চলেই এল। এই সময়ে স্নান করার কথা ভাবলেও ঠাণ্ডা লাগে। আবার পানি খেতেও আলসতা সৃষ্টি হয়। কিন্তু শীতকালে আমাদের স্নান সঠিক উপায়ে করা উচিত। একইসঙ্গে পানি এবং সব্জি পরিমিত পরিমাণে খাওয়া উচিত। এতে  শরীর ও ত্বক উভয়ই ভালো থাকবে। সঠিক ক্রিম ব্যবহার এবং সঠিক খাবার ত্বক সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে। কিভাবে শীতকালে ত্বক এবং শরীর ভালো রাখা যায় এ নিয়ে আজকে আমাদের এ আয়োজন।

হাল্কা গরম জলে গোসল করুন

শীতকালে ঠাণ্ডা জল ব্যবহার করা যেমন কষ্টকর, তেমন ক্ষতিকরও। কারণ ঠাণ্ডা জলে স্নান করলে হঠাৎ করে ঠাণ্ডা লেগে যেতে পারে। তাই মুখ বা শুধু হাত ধুতে নয়, স্নান করার সময় গরম জল ব্যবহার করা উচিত। কারণ, এতে ত্বকে প্রয়োজনীয় পরিমাণে তৈলাক্তভাব বজায় থাকে।

ত্বকে নিয়ম করে ক্রিম লাগান

যখন তখন ক্রিম না মেখে বরং স্নানের পর ক্রিম মাখুন। এতে শরীরে আদ্রতা বজায় থাকবে। তাই ত্বক সুস্থ রাখতে নিয়ম করে ক্রিম লাগাতে হবে।

সঠিক ক্রিম বেছে নিন

শীতে অনেকেই পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করেন, যা কিছু সময় পর ত্বককে পুনরায় শুষ্ক করে তোলে। শীতকালে ওয়াটার বেসড ক্রিমের থেকে অয়েল বেসড ক্রিম মাখা ভালো। এতে ত্বক আদ্র থাকে। এছাড়াও, শীতকালে নানা সুগন্ধে ভরা বডি অয়েল ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন- ল্যাভেন্ডার, ক্যামোলিন, জোজোবা ইত্যাদি।

শরীরকে আদ্র রাখুন

অনেকেই শীতকালে ঘরে হিটার ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু হিটারের বদলে চেষ্টা করুন হিউমিডিফায়ার ব্যবহার করতে। কারণ, হিটার ঘরের ভিতরের পরিবেশকে গরম করে তুললেও বাতাসকে খুব শুষ্ক করে দেয়, যা ত্বকের জন্য একদমই ভালো নয়। এছাড়াও রোদে বেরোনোর আগে সানস্ক্রিন মাখাসহ অতিরিক্ত ঠাণ্ডায় হাতমোজা, মাথায় রুমাল ব্যবহার করলে অনেক উপকার পাওয়া যাবে।

নিয়মিত পানি পান করুন

শীতকালে আমরা অনেকেই খুব কম পরিমাণ পানি পান করি, যা শরীরের জন্য ভালো নয়। তাই শরীরের ভেতরে তাপমাত্রা ঠিক রাখতে পানি পান খুবই জরুরি। সেক্ষেত্রে শীতকালে পানি খানিকটা গরম করে পান করা যেতে পারে। সঙ্গে লেবুর রস কয়েক ফোঁটা মিশিয়ে নিলে ভালো উপকার পাওয়া যাবে।

রাতে ক্রিম মেখে ঘুমাতে পারেন

শীতকালে শরীরকে আদ্র রাখা খুবই জরুরি। আর তাই প্রয়োজন অনুযায়ী ক্রিম ব্যবহার করতে হবে। আমাদের সারা শরীরে সব থেকে বেশি শুষ্ক থাকে হাত, পা, হাঁটু, কপাল ইত্যাদি অংশগুলো। তাই রাতে শোয়ার আগে এইসব জায়গায় ভালো করে ক্রিম মেখে তারপর মোজা পড়ে নিতে হবে। যাতে সকাল অবধি আদ্রতা বজায় থাকে।

বিষাক্ত, অ্যালার্জিবর্ধক উপাদান বর্জন করুন

শীতকালে অনেকের নানারকম ত্বকের সমস্যা দেখা যায়। এ সময়ে শ্বাসকষ্ট এবং অ্যালার্জি বৃদ্ধি পায়। তাই এই সময় কেমিকেল মিশ্রিত ডিটারজেন্ট ব্যবহার না করাই ভালো। যাতে অ্যালার্জি না হতে পারে এমন ক্রিম ব্যবহার করা উচিত।

 সঠিক ক্লিঞ্জার ব্যবহার করুন

অনেকসময় ক্লিঞ্জার আমাদের ত্বককে শুষ্ক করে তোলে। তাই শীতকালের জন্য সঠিক ক্লিঞ্জার ব্যবহার করা খুব জরুরি। এমন ধরণের ক্লিঞ্জার ব্যবহার করতে হবে, যার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আদ্রতা সম্বলিত উপকরণ থাকে। এতে ত্বক আদ্র থাকবে। এছাড়াও, ক্লিঞ্জার দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার পর ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে টোনার লাগাতে হবে। এরপর ভালো কোনো ক্রিম মুখে মেখে নিতে হবে।

ঘরে ফেসমাস্ক বানান

দোকান থেকে না কিনে শীতে ত্বকের যত্ন নিন ঘরে বানানো ফেসমাস্ক দিয়ে। শীতে ফেসমাস্ক বানাতে মধু, অ্যাভকাডো, দই, অলিভ এবং জোজোবা তেল ব্যবহার করুন। এগুলো একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে মেখে ১০-৩০ মিনিট রেখে দিন। তাতে ত্বক উজ্জল এবং আদ্র থাকবে। সূত্র: বোল্ড স্কাই