গভীর রাতে স্ত্রীকে ধর্ষণ বর্ধমান মেডিক্যালে! ঘুম ভেঙে স্বামী দেখলেন সেদৃশ্য

জি এম নিউজ জি এম নিউজ

বাংলার প্রতিচ্ছবি

প্রকাশিত: ১০:১৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ১০:১৫:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৮

স্ত্রীর চিৎকারে ঘুম ভাঙে স্বামীর। চোখ খুলেই তিনি দেখতে পান, তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে ধস্তাধস্তি করছে ভোলা।

বর্ধমান স্টেশনের পর এবার ধর্ষণের ঘটনা ঘটল খোদ বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। মঙ্গলবার রাতে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের আউটডোরের বারান্দায় এক মহিলাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল এক অ্যাম্বুল্যান্স কর্মীর বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত অ্যাম্বুল্যান্স কর্মী রথীন বৈরাগ্য ওরফে ভোলাকে গ্রেফতার করেছে বর্ধমান থানার পুলিশ।

 

জানা গিয়েছে, হাসপাতালের মেন গেটের বাইরে দাঁড় করানো ছিল একটি অ্যাম্বুল্যান্স। ওই অ্যাম্বুল্যান্সেই কর্মরত ছিল ভোলা। অন্যদিকে, নির্যাতিতা মহিলার স্বামী হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগের সামনে একটি চায়ের দোকানে কাজ করেন। হাসপাতালের আউটডোরের বারান্দাতেই স্ত্রী-মেয়েকে নিয়ে থাকেন। নির্যাতিতা মহিলার স্বামী জানিয়েছেন, রবিবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। তাঁর স্ত্রী মানসিক রোগী। রবিবার রাতে দোকান বন্ধ করার পর, তিনি স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে হাসপাতালের আউটডোরের বারান্দায় শুয়ে ছিলেন। এমন সময় স্ত্রীর চিৎকারে তাঁর ঘুম ভাঙে। চোখ খুলেই তিনি দেখতে পান, তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে ধস্তাধস্তি করছে ভোলা।

 

এদৃশ্য দেখার পরই ভোলাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন তিনি। তাঁদের চিৎকার চেঁচামেচিতে ছুটে আসে হাসপাতালের ক্যাম্পের পুলিশ। অভিযুক্ত অ্যাম্বুল্যান্স কর্মী ভোলাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় পুলিশ। বর্তমানে নির্যাতিতা মহিলা হাসপাতালে চিকিত্সাধীন রয়েছেন।

  • zeenews.india